২০২৩ মাধ্যমিক পরীক্ষায় নিয়মের বড় পরিবর্তন! ২ মাস আগে এগুলি জানিয়ে দিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ!

টেট পরীক্ষা আয়োজনের অভিজ্ঞতা এবার প্রয়োগ করা হবে ২০২৩ মাধ্যমিক পরীক্ষায় (2023 Madhyamik Exam)। ফলে জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষাতেই নজিরবিহীন কড়াকড়ির মুখোমুখি হতে হবে বাংলার ছেলেমেয়েদের। এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষায় কার্যত হাইটেক দুর্গে পরিণত করা হবে প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রকে। এসব কিছুর লক্ষ্য একটাই, মধ্যশিক্ষা পর্ষদ (WBBSE) চায় সম্পূর্ণ বিতর্কমুক্ত ও স্বচ্ছ মাধ্যমিক পরীক্ষা আয়োজন করতে। 

2023 Madhyamik exam major changes in rules

কী কী পরিবর্তন আসছে 2023 মাধ্যমিক পরীক্ষায়?

মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র, পরীক্ষার সময়সূচি বা সিলেবাসের কোন‌ও সম্পর্ক নেই এই পরিবর্তনের সঙ্গে। গোটা বিষয়টাই করা হচ্ছে প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রের উপর কেন্দ্রীয়ভাবে কড়া নজরদারি চালানোর জন্য। যাতে কলকাতায় বসে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের কর্তারা চাইলেই প্রায় তিন হাজার পরীক্ষাকেন্দ্রের সেই মুহূর্তের ছবি ও পরিস্থিতি সঙ্গে সঙ্গে দেখতে পেয়ে যান। সেই সঙ্গে লক্ষ্য, যেকোনও উপায়ে প্রশ্ন ফাঁস হওয়া আটকানো

এক্ষেত্রে তাঁরা গত ১১ ডিসেম্বর হয়ে যাওয়া টেট পরীক্ষা আয়োজনে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে চাইছেন। কারণ প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার প্রবল আশঙ্কা থাকলেও সেসব কিছু সফলভাবে রুখে দিতে পেরেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। আর তা সম্ভব হয়েছে অত্যাধুনিক সব হাইটেক প্রযুক্তি ব্যবহার করে২৩ ফেব্রুয়ারি শুরু হতে চলা মাধ্যমিক পরীক্ষাতে এবার সেইসব প্রযুক্তি ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

২০২৩ এর মাধ্যমিক পরীক্ষার ক্ষেত্রে যেসমস্ত নতুন নিয়ম চালু করা হচ্ছে সেগুলি আমরা পর জানিয়েছি- 

(1) এবারে মাধ্যমিক পরীক্ষার শুরু হবে ২৩ ফেব্রুয়ারি, চলবে ৪ মার্চ পর্যন্ত। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের অনুমান প্রায় পৌনে দশ লক্ষ পরীক্ষার্থী এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসবে। তার ফলে প্রায় হাজার তিনেক পরীক্ষাকেন্দ্রের প্রয়োজন পড়বে। ইতিমধ্যে কোন কোন স্কুলে পরীক্ষাকেন্দ্র করা হবে তা ঠিক হয়ে গিয়েছে। আর কয়েক দিনের মধ্যেই এই পরীক্ষাকেন্দ্রগুলিতে সিসিটিভি (CCTV) বসানোর কাজ শুরু হবে।

(3) সূত্রের খবর, রাজ্যের বেশ কিছু মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্রে ইতিমধ্যেই সিসিটিভি আছে। কিন্তু বহু স্কুলে আবার এসব কিছুই নেই। মধ্যশিক্ষা পর্ষদ ঠিক করেছে, যে সমস্ত মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্রে সিসিটিভি নেই সেখানে কমপক্ষে তিনটি করে সিসিটিভি, ক্যামেরা বসানো হবে। স্কুলে ঢোকা-বেরনোর পথ প্রধান শিক্ষকের ঘর বা প্রশ্ন রাখার স্ট্রং রুম এবং স্কুলের করিডর, যেখান থেকে ছাত্রছাত্রীরা বিভিন্ন ঘরের দিকে চলে যায় সেই সমস্ত জায়গা সিসিটিভি ক্যামেরা দিয়ে মুড়ে ফেলা হবে।

(4) সিসিটিভির মাধ্যমে প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রের উপর সর্বক্ষণ নজরদারি চালানোর জন্য মধ্যশিক্ষা পর্ষদ ইতোমধ্যেই একটি অ্যাপ তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে ভেনু ইনচার্জরা সর্বক্ষণ নজরদারি চালাবেন। পাশাপাশি স্কুলে কোন‌ও গণ্ডগোল হলে তার ছবিও এই অ্যাপের মাধ্যমে তৎক্ষণাৎ আপলোড করতে হবে।

(5) প্রতিবছর মাধ্যমিক পরীক্ষার সময় খবর আসে বেশ কিছু পরীক্ষাকেন্দ্রে ভাঙচুর চালিয়েছে পরীক্ষার্থীরা। এবারেও সেরকম কিছু হলে তৎক্ষণাৎ সেই ছবি মধ্যশিক্ষা পর্ষদের অ্যাপে আপলোড করতে হবে। তবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ নিজেও প্রতিদিন প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রের পরীক্ষা শুরুর আগে ও পরের অবস্থান জিপিএস-এর মাধ্যমে ট্র্যাক করবে। এই কারণে প্রায় তিন হাজার পরীক্ষা কেন্দ্রকে জিপিএস ব্যবস্থার মাধ্যমে সংযুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

(6) যে স্কুলের ছাত্ররা পরীক্ষাকেন্দ্রে ভাঙচুর করবে, তাদের জন্য এবার কড়া শাস্তির বিধান দিয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। নিয়ম অনুযায়ী মাধ্যমিক পরীক্ষার সিট অন্য স্কুলে পড়ে। এবার যদি কোন‌ও স্কুলের ছাত্ররা যেখানে সিট পড়েছে সেখানে ভাঙচুর চালায়, তবে অভিযুক্ত ছাত্র-ছাত্রীরা যে স্কুলের পড়ুয়া সেই স্কুল যতক্ষণ পর্যন্ত না পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ মেটাচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত ওই স্কুলের সমস্ত ছাত্রছাত্রীর মার্কশিট আটকে রাখবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

(7) পরীক্ষার দিনগুলোর সকাল আটটায় প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রশ্ন পৌঁছে যাবে। পরীক্ষা কেন্দ্রের নিরাপত্তায় থাকা পুলিশ কর্মীদের তার আগেই পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছে যেতে হবে এবং থাকতে হবে পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত।

(8) মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা পুলিশকর্মী ও স্বাস্থ্যকর্মীরা জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না।

(9) পরীক্ষা শেষ হওয়ার নির্ধারিত সময়ের আগে কোনও পরীক্ষার্থী যদি উত্তরপত্র জমা দেয়, তবে তাকে প্রশ্ন‌ও জমা দিয়ে দিতে হবে। প্রশ্ন ফাঁস হওয়া আটকাতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

(10) এই গোটা নিয়মের পরিবর্তন প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ডের সঙ্গে লিফলেট আকারে জানিয়ে দেওয়া হবে

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরি ও কাজের আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন।  

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 5 টি রাজ্যে বন্ধ হল স্কুল, আসল কারুন জানুন

🎯 ৯৯.৭৮% নম্বর পেয়ে রেকর্ড করলেন এসি মেকানিকের ছেলে

🎯 ১৫ তারিখের মধ্যে ৮২,০০০ জনকে দেওয়া হবে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড