CTET-পাশেদের রাজ্যের প্রাইমারিতে সুযোগ দেওয়া নিয়ে মামলা, এই বিরোধিতা কতটা যুক্তিযুক্ত?

1/8: প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ, তার যোগ্যতা অর্জনের জন্য টেট পরীক্ষা (TET Exam) ঘিরে প্রশ্ন, জটিলতা ও মামলার যেন শেষ নেই। চলতি শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া ঘিরে ফের একটি মামলা দায়ের হল কলকাতা হাইকোর্টে।

2/8: এর আগে কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চ রায় দিয়ে বলেছিল, এবার থেকে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কেন্দ্রীয় টেট উত্তীর্ণরা বা CTET পাশরাও অংশ নিতে পারবেন। এবার আদালতের সেই সিদ্ধান্তকেই চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে মামলা দায়ের করলেন পশ্চিমবঙ্গের টেট উত্তীর্ণ বা WBTET চাকরিপ্রার্থীদের একাংশ।

Case on giving opportunity to CTET-passers in state primaries

3/8: কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চের রায় মেনে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীদের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সুযোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ (WBBPE)। কেন্দ্রীয় টেট উত্তীর্ণদের জন্য পৃথকভাবে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে পর্ষদের ওয়েবসাইটে।

আরো আপডেট: LIC অফিসে মোটা বেতনের চাকরি

4/8: পৃথকভাবে তাঁদের ইন্টারভিউ নেওয়া হবে শিক্ষক পদের জন্য। তবে কেন্দ্রীয় টেট (CTET) উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীরা শেষ পর্যন্ত চাকরি পাবেন কিনা সেটা পুরোপুরিভাবে কলকাতা হাইকোর্টের রায়ের উপর নির্ভর করবে বলেও জানানো হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের পক্ষ থেকে।

5/8: কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চের রায় ও প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের এই পদক্ষেপে অশনি সঙ্কেত দেখছেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীরা। কারণ, কেন্দ্রীয় টেট উত্তীর্ণ চাকরিরপ্রার্থীরা নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণের সুযোগ পেলে রাজ্যের টেট উত্তীর্ণদের চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা আরও বেড়ে যাবে।

6/8: ঘটনা হল, এতদিন কেন্দ্রীয় টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীরা বাংলার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণের সুযোগ পেতেন না। কিন্তু আদালতের রায়ে তাঁদের সামনে নতুন দরজা খুলে গিয়েছে। আর তা নিয়েই দেখা দিয়েছে বিতর্ক।

আরো আপডেট: রাজ্যের ২৫ হাজার প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি নিয়ে টানাটানি

7/8: রাজ্য টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীদের একাংশ কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয়ে সিঙ্গেল বেঞ্চের রায়ের বিরোধিতা করেছেন। তাঁরা আর্জি জানিয়েছেন, রাজ্যে শিক্ষক শূন্য পদের সংখ্যার থেকে টেট উত্তীর্ণ যোগ্য চাকরিপ্রার্থীর সংখ্যা অনেক বেশি। এই অবস্থায় কেন্দ্রীয় টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীদের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণের সুযোগ করে দিলে প্রতিযোগিতা আরও বাড়বে। তাতে বঞ্চিত হবেন রাজ্যের টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীরা।

8/8: তবে এই মামলার শুনানি এখনও পর্যন্ত হয়নি। এখন দেখার, রাজ্য টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীদের দায়ের করা এই নতুন মামলায় কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ কী রায় দেয়। তবে শিক্ষা মহলের একাংশের মতে, রাজ্য টেট উত্তীর্ণ চাকরিরপ্রার্থীদের দাবিতে আবেগ থাকলেও যুক্তি কম। কারণ টেট পরীক্ষা যখন চালু হয় তখনই বলা হয়েছিল কেন্দ্রীয় টেট উত্তীর্ণরা বাকি যোগ্যতা মিলে গেলে রাজ্যের শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়াতেও অংশ নিতে পারবেন।

আরো আপডেট: নোটের উপর একটা কালির দাগ থাকলেই তা বাতিল? 

Important Links: 👇👇

কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপJoin Now
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো আপডেট-Click Here