নোটের উপর একটা কালির দাগ থাকলেই তা বাতিল, ফেরত নেবে না ব্যাংক! আসল ঘটনা কী জানুন

কয়েক বছর আগেও ১০, ২০, ৫০ এমনকি ১০০ টাকার কিছু কিছু নোট দেখলে মনে হত সেটা বুঝি বাজারের ফর্দ! তবে নোট বন্দির পর নতুন ২০০০৫০০ টাকার নোটের হাত ধরে সেই পরিস্থিতি অনেকটাই বদলে যায়। কারণ ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক (RBI) জানিয়ে দিয়েছিল, নতুন নোটের উপর পেন দিয়ে কিছু লিখলে তা বাতিল বলে ধরা হবে। 

সেই সঙ্গে ব্যাঙ্কগুলোও স্টেপলারের পিন দিয়ে নোটের বান্ডিল তৈরির বদলে এখন তা এক জায়গায় করে কাগজের রিবন দিয়ে আটকে রাখে। ফলে কয়েক বছরের মধ্যেই ভারতীয় বাজারে নোট (Currency) অনেকটাই পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন হয়ে উঠেছে। কিন্তু সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি খবর ভাইরাল হয়েছে– কোন‌ও নোটে সামান্যতম দাগ থাকলে, এমনকি তা পেন্সিলের হলেও সেটা আর গ্রহণ করবে না ব্যাঙ্ক। সে যত টাকারই নোট হোক সেটি বাতিল বলে গণ্য হবে।

If there is an ink mark on the note, it is invalid, the bank will not take it back

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে RBI Clean Note Policy নামের একটি বিষয়। তাতেই বলা হয়েছে যে কোন‌ও নোটের উপর পেন তো দুরস্থান, পেন্সিলেরও সামান্যতম দাগ থাকলে তা আর গ্রহণ করা হবে না। সেটা বাতিল বলে বিবেচনা করবে সরকার ও রিজার্ভ ব্যাঙ্ক।

এই বিষয়টি ভাইরাল হওয়ার পরই বহু জায়গায় ৫০০, ১০০ এমনকি ৫০ টাকার নোটের উপরেও সামান্যতম পেন্সিলের আঁচড় থাকলে তা আর নিতে চাইছেন না দোকানদাররা। খরিদ্দাররাও এক‌ইরকমভাবে দোকানদারের কাছ থেকে এমন নোট নিতে অস্বীকার করছেন। ফলে দেশের গ্রামাঞ্চলের একটা বড় অংশে বাজার চলতি নোট নিয়ে ধীরে ধীরে অচল অবস্থা তৈরি হচ্ছে।

আরো আপডেট: ১০ লাখ টাকা ইনকাম থাকলে দিতে হবে এই পরিমান ট্যাক্স

এই পরিস্থিতিতে আমরা জেনে নেওয়ার চেষ্টা করব, Clean Note Policy সম্পর্কে আরবিআই ও কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকৃত অবস্থান কী-

এই বিষয়ে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া কী বলছে?

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বা কেন্দ্রীয় সরকার, কেউই এই Clean Note Policy ঘোষণা করেনি বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরোর (PIB) ফ্যাক্ট চেক শাখা। তারা জানিয়েছে, বাজারে আর পাঁচটা ভুয়ো খবর যেমন ভাইরাল হয়, তেমনই নোটের উপর লেখা সংক্রান্ত বিষয়টি ভাইরাল হয়েছে

এই বিষয়ে আরবিআই বা কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে কোন‌ও নতুন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এমনকি সাম্প্রতিককালে এই বিষয়টি নিয়ে সরকার বা রিজার্ভ ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে কোন‌ও নির্দেশিকা জারি করা হয়নি বলেও স্পষ্ট জানানো হয়েছে।

অর্থাৎ ব্যাঙ্ক নোটে সামান্যতম পেন্সিলের আঁচড় থাকলেও সেটি বাতিল হয়ে যাবে এটা আসলে ভুয়ো খবর। যা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। এর পাশাপাশি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক আর একটা বিষয়ও সকলের উদ্দেশ্যে বলেছে। তারা জানিয়েছে, ব্যাঙ্ক নোটের উপর পেন্সিল বা কোন‌ও কিছুরই সামান্য দাগ থাকলেই তা বাতিল হয়ে যাবে বিষয়টা এমন মোটেও নয়। ‘

কিন্তু সেই সঙ্গে পরিষ্কার নোট ব্যবহারের জন্য তার উপর কোন‌ও কিছু না লেখার পরামর্শ দিয়েছে আরবিআই। তাঁরা বলেছে, স্বচ্ছ ভারত গড়ার লক্ষ্যে দেশবাসীর উচিত ব্যাঙ্ক নোটের উপর কিছু না লেখা। 

আরো আপডেট: গ্রামীণ এলাকায় এই ব্যবসা করে ভালো ইনকামের সুযোগ

এই প্রতিবেদনটি লেখার পিছনে আমাদের মূল উদ্দেশ্য হল আপনাকে সচেতন করে তোলা। সবশেষে আরো একবার জানিয়ে দিই, টাকার উপর বা নোটের উপর সামান্য পেনের বা পেনসিলের সামান্য দাগ থাকলে তা বাতিল- এই বিষয়টি একদম ভুয়ো। কেউ বা কারা এই মিথ্যে খবরটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিয়েছে।  

Important Links:  👇👇

কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপJoin Now
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো আপডেট 👇👇

🎯 প্রতি মাসে প্রায় ৫০ হাজার টাকা ইনকাম এই ব্যবসায়

🎯 মোদী প্রতিটি মেয়েকে দিচ্ছে ২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা

🎯 প্রতিদিন ২ টাকা জমিয়ে মাসে মাসে ৩০০০ টাকা করে পান