ভুলে অন্যের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেললে, ৩ দিনের মধ্যেই এই কাজ করুন!

PhonePe, Paytm, Google pay এসে টাকা ট্রান্সফার (Money Transfer) করা এখন জলভাত হয়ে গিয়েছে। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা অন্যের অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দিতে পারি আমরা। এর জন্য ব্যাঙ্কের শাখায় যাওয়ার আর কোনও দরকার পড়ছে না। এইভাবে টাকা ট্রান্সফারের জন্য আমরা সকলেই জানি শুধু দুটো মাত্র বিষয় দরকার।

এক, আপনার অ্যাকাউন্ট টিকে UPI কানেক্টেড হতে হবে। সেইসঙ্গে ভারত সরকারের ভীম ইউপিআই (Bhim UPI) অ্যাপ বা গুগল-পে, পেটিএম, ফোন-পে-র মত টাকা ট্রান্সফার করার কোনও অ্যাপ, বা যেখানে আপনার অ্যাকাউন্ট আছে সেই সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কের অ্যাপ আপনাকে ব্যবহার করতে হবে।

দ্বিতীয়ত, যার অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করতে চান তাঁর অ্যাকাউন্টকেও ইউপিআই (UPI) কানেক্টেড হতে হবে। এমনকি যার অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে চান, তাঁর অ্যাকাউন্ট ইউপিআই কানেক্টেড না হলেও এইভাবে মুহূর্তের মধ্যে টাকা পাঠানো সম্ভব‌। সেক্ষেত্রে ওই ব্যক্তির অ্যাকাউন্টের ডিটেলস ঠিকঠাকভাবে জানা থাকলে আপনি বাড়িতে বসেই ফোন ব্যবহার করে মুহূর্তের মধ্যে টাকা পাঠিয়ে দিতে পারবেন।

এ তো গেল ইউপিআই নম্বর ব্যবহার করে সেকেন্ডের মধ্যে টাকা লেনদেনের সুবিধের দিক। কিন্তু এই সুযোগের হাত ধরে এক মস্ত বিপদ‌ও এসে হাজির হয়েছে। অনেকেই যাকে টাকা পাঠাতে চান বেখেয়ালে তাঁর বদলে অন্য লোককে টাকা পাঠিয়ে ফেলছেন। এখন প্রশ্ন হল, ভুল করে কাউকে টাকা পাঠিয়ে ফেললে সেই টাকা কি আর ফেরত পাওয়া সম্ভব?

If you transfer money to someone else's account by mistake, do this within 3 days

ভুল করে কারোর অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠালে সেই টাকা ফেরত পাওয়া সম্ভব?

হ্যাঁ, ভুল করে অন্যের বা অপরিচিত কারোর অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেললেও সেই টাকা আপনি ফেরত পেতে পারেন। তবে এর জন্য আপনাকে কতগুলি দিক মাথায় রাখতে হবে। এই টাকা ফেরত পাওয়ার ক্ষেত্রে আপনাকে দুটি ধাপ মাথায় রাখতে হবে।

আরো আপডেট: ১০ লাখ টাকা ইনকাম থাকলে কত ট্যাক্স দিতে হবে?

(1) তিন দিনের মধ্যে বিষয়টি ব্যাংককে  জানান 

ভুল করে কারোর অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে থাকলে ৩ দিনের মধ্যেই বিষয়টি আপনাকে আপনার নিজের ব্যাঙ্ককে জানাতে হবে। জানাতে হবে আপনি ভুল করে অন্যের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেলেছেন। এই বিষয়টি আবার তিন ভাবে জানানো সম্ভব।

(ক) ব্যাঙ্কের কাস্টমার কেয়ারে ফোন করে ভুল অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানোর বিষয়টি জানাতে পারেন। সে ক্ষেত্রে আপনার নিজের অ্যাকাউন্ট ডিটেলসের পাশাপাশি কোন অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়েছেন সেটিও জানাতে হবে।

(খ) ই-মেল করেও ব্যাঙ্ককে এই ভুল অ্যাকাউন্টে টাকা লেনদেনের বিষয়টি জানাতে পারেন। এক্ষেত্রেও নিজের এবং যে অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়েছেন তার বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে।

(গ) অথবা আপনি সরাসরি নিজের ব্যাঙ্কের শাখায় গিয়ে ম্যানেজারের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি জানাতে পারেন। তাঁর নির্দেশ মত একটি আবেদনপত্র জমা দিয়ে এই টাকা ফেরত পাওয়ার প্রসেস শুরু করা যায়।

(2) টাকা ফেরত পাওয়ার প্রক্রিয়া

ভুল অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়েছেন এই বিষয়টি ব্যাঙ্কে জানানোর পর দ্বিতীয় ধাপ শুরু হবে। আর সেটা হল টাকা ফেরতের ধাপ। এক্ষেত্রেও দুটি বিষয় ঘটতে পারে।

(ক) আপনি ভুল করে যে অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়েছেন সেটি যদি বর্তমানে নিষ্ক্রিয় অ্যাকাউন্ট হয় বা ইউপিআই নম্বরটি ভুল হয়, তবে আপনার টাকা সঙ্গে সঙ্গে নিজের অ্যাকাউন্টে ফেরত চলে আসবে। এক্ষেত্রে অন্যরকম কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

(খ) কিন্তু ভুল করে যে অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়েছেন সেটি যদি সক্রিয় হয় বা ইউপিআই নম্বরটি বৈধ হয়, সেক্ষেত্রেও আপনি টাকা ফেরত পেতে পারেন। এক্ষেত্রে ভুল করে যার অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়েছেন, সেই প্রাপকের সম্মতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে। তিনি যদি ভালোভাবে আপনার টাকা ফেরত দিয়ে দিতে রাজি হন, তবে ৭ দিনের মধ্যে ব্যাঙ্ক সেই টাকা আপনার অ্যাকাউন্টে ফিরিয়ে দেবে। তবে ওই প্রাপক যদি আপনার সঙ্গে সহযোগিতা করতে না চান, তিনি যদি টাকা ফেরত দিতে রাজি না হন সেক্ষেত্রে সেই অর্থ ফেরত পাওয়া একপ্রকার অসম্ভব!

আরো আপডেট: গ্রামীণ এলাকায় এই ব্যবসা করে ভালো ইনকামের সুযোগ

Important Links:  👇👇

কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপJoin Now
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো আপডেট-Click Here