১১ ডিসেম্বরের টেট নিয়ে এবার সক্রিয় নবান্ন, নেওয়া হলো একগুচ্ছ ফাইনাল সিদ্ধান্ত

এবারের টেট পরীক্ষা (TET Exam) ঘিরে যেন একটা কিছু হতে চলেছে পরিস্থিতি। ১১ ডিসেম্বর রাজ্যে যে টেট পরীক্ষা হবে তার নিয়মকানুন, প্রস্তুতি নিয়ে নিয়মিত আপডেট আপনাদের দিচ্ছি আমরা। তবে টেট ঘিরে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের পাশাপাশি সরকার‌ও যেভাবে যুদ্ধংদেহী মেজাজে তোরজোড় শুরু করেছে তা সত্যিই নজিরবিহীন। এই নিয়ে বৃহস্পতিবার নবান্নে খোদ মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীর নেতৃত্বে বৈঠক‌ও হয়। সেখানে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের এতোদিনের নেওয়া সিদ্ধান্তগুলোকে সিলমোহর দেওয়ার পাশাপাশি আর‌ও কিছু ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার নবান্নে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ, স্কুল শিক্ষা দফতর, স্বাস্থ্য দফতর, স্বরাষ্ট্র দফতর, বিদ্যুত দফতরের প্রতিনিধি দলের নিয়ে বৈঠক করেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, এবারের টেটকে সব বিতর্কের উর্দ্ধে রাখতে হবে। তাঁর জন্ম যা যা ব্যবস্থা নেওয়ার সব নিতে হবে বলে জানান মুখ্যসচিব।

Nabnna is active this time with TET a bunch of final decisions have been taken

নবান্নর ওই বৈঠকে ঠিক হয়েছে-

১) যেহেতু পরীক্ষার্থীরা স্মার্ট ওয়াচ, এমনকি সাধারণ হাতঘড়ি পরে পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে পারবেন না, তাই পরীক্ষাকেন্দ্রের প্রতিটি ঘরে দেওয়াল ঘড়ি টাঙাতে হবে। এবার মোট ১৪৫৩ টি পরীক্ষাকেন্দ্রে টেটের পরীক্ষা হবে। এগুলো সরকারি ডিএল‌এড কলেজের পাশাপাশি সরকারি স্কুল ও কলেজগুলো থেকে নির্বাচিত করা হয়েছে। তাই দেওয়াল গরিব টাঙানোর নির্দেশ স্কুল শিক্ষা দফতরের পক্ষ থেকে প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রে ইতিমধ্যেই পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

২) পরীক্ষাকেন্দ্রে যাতে সাংবাদিকরা কোনমতেই প্রবেশ করতে না পারেন সেই বিষয়টি সেন্টার ইনচার্জের পাশাপাশি পুলিশের নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে।

৩) এবার টেট পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তরপত্র পরীক্ষাকেন্দ্রে আনা এবং পরীক্ষা শেষে উত্তরপত্র প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের রিজিওনাল অফিসগুলোয় পৌঁছে দেওয়ার কাজ মূলত পুলিশকে করতে হবে। এরজন্য রাস্তায় এসকর্ট করে দ্রুত ও নিরাপদে গোটা বিষয়টি সারার কথা বলা হয়েছে। স্বরাষ্ট্র দফতরকে টেটের দিন পর্যাপ্ত পুলিশি নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

৪) আগেই পর্ষদ সিদ্ধান্ত নিয়েছিল টেট পরীক্ষার সময় পরীক্ষাকেন্দ্রগুলোর আসেপাশে ১৪৪ ধারা জারি করার। বৃহস্পতিবারের বৈঠকে তাতে সিলমোহর দেওয়া হয়েছে। ওখানেই সিদ্ধান্ত হয়, পরীক্ষা চলাকালীন পরীক্ষাকেন্দ্রের আসেপাশে কোন‌ও প্রতিলিপির দোকান (জেরক্স দোকান) খুলে রাখা যাবে না। মাইক, বক্স বাজানো চলবে না। এমনকি পরীক্ষাকেন্দ্রের আসেপাশে যাতে জোরে গাড়ির হর্ন না বাজে সেটাও দেখতে বলা হয়েছে।

৫) পরীক্ষার দিন গণপরিবহন ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পরিবহণ দফতরকে। রাস্তায় পর্যাপ্ত বাস ও ট্রেন চলার বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

৬) বিদ্যুৎ দফতরকে পরীক্ষার সময় রাজ্যজুড়ে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলেছেন মুখ্যসচিব। এ বিষয়ে কোনও অজুহাত চলবে না বলে কড়া মনোভাব নিয়েছে সরকার।

৭) এদিকে সফলভাবে টেট পরীক্ষা আয়োজনের জন্য জেলা ও মহকুমা স্তরে দুটি কো-অর্ডিনেশন কমিটি তৈরি করে দিয়েছে সরকার। তারা প্রতিমুহূর্তে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলবেন।

সবমিলিয়ে বিতর্ক এড়াতে টেট পরীক্ষা ঘিরে পর্ষদ ও সরকারের অন্দরে যেন যুদ্ধ প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 রাজ্যে রেলে টিকিট কাউন্টারে চাকরি

🎯 টেট পরীক্ষার উত্তরপত্র নিয়ে বড় ঘোষনা পর্ষদের

🎯 দীর্ঘ ৮ বছর পর ডিসেম্বরেই উচ্চ প্রাথমিকের মেধা তালিকা