প্রাইমারি টেট নিয়ে আবার নতুন মামলা হাইকোর্টে, ২০১৭ এর মেধাতালিকাতে হয়েছে এই কারচুপি!

1/6: অনিয়ম, বেআইনি কাজ, দুর্নীতি এটাই যেন বাংলার শিক্ষাক্ষেত্রের পরিচিত ছবি হয়ে দাঁড়িয়েছে। নাহলে এতো বিতর্কের পর অবশেষে ২০১৭ এর টেট উত্তীর্ণদের নম্বর প্রকাশিত হতেই তা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে? অবশ্য প্রাথমিকভাবে যে তথ্য সামনে এসেছে তা যদি সত্যি হয় তবে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ ফের যে বড়সড় অনিয়ম করে বসেছে তা বলতেই হবে।

2/6: গত সোমবার প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল সাংবাদিক বৈঠক করে জানান এ দিন রাতেই তাঁরা ২০১৭ সালের টেট উত্তীর্ণ ৯,৮৯৬ জন চাকরিপ্রার্থীর প্রাপ্ত নম্বর ঘোষণা করার চেষ্টা করছেন। শেষ পর্যন্ত পর্ষদ সভাপতির ঘোষণা মতো ওই রাতেই প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের ওয়েবসাইটে ২০১৭ এর টেট উত্তীর্ণদের নম্বরের তালিকা প্রকাশ করা হয়। কিন্তু সেখানে বড়সড় গোলামি চোখে এসেছে। আর তা নিয়েই নতুন মামলা দায়ের হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে।

New case on TET again in High Court, this rigging in 2017 merit list

3/6: মামলাকারী চাকরিপ্রার্থীর আইনজীবী সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, জানুয়ারি মাসে এক চাকরিপ্রার্থী আরটিভি করে জানতে পারেন তিনি ২০১৭ এর টেটে ২৪ নম্বর পেয়েছেন। কিন্তু সোমবার রাতে প্রকাশ করা নম্বর তালিকায় ওই চাকরিপ্রার্থীর নম্বর বেড়ে একলাফে ৮৫ হয়ে গিয়েছে!

4/6: শুধু একজন নয়, বহু চাকরিপ্রার্থীর নম্বরের ক্ষেত্রেই এমন গোলমাল দেখা গিয়েছে বলে ওই আইনজীবী দাবি করেন। নিজের দাবির স্বপক্ষে আরটিভি করে পাওয়া ২০১৭ এর টেটের একটি ও‌এম‌আর শিট তিনি আদালতে জমা দেন। মামলাকারীর আইনজীবীর এই বক্তব্য শুনে টেটের প্রকাশিত ফলের বিষয়ে মামলা দায়ের করার অনুমতি দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

5/6: উল্লেখ্য, প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ ১১ হাজার ৭৬৫ শিক্ষক নিয়োগের নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। কিন্তু প্রাপ্ত নম্বর জানা না থাকায় ২০১৭ ও ২০১৪ এর টেট পাশ চাকরিপ্রার্থীদের আবেদন করতে সমস্যা হচ্ছিল। এই নিয়ে তাঁরা কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় পর্ষদকে দ্রুত নম্বর প্রকাশের নির্দেশ দেন।

6/6: তারপর‌ই পর্ষদ ২০১৭ এর টেটের ফল প্রকাশ করে। কিন্তু আর‌ও আগে হ‌ওয়া ২০১৪ এর টেট উত্তীর্ণদের প্রাপ্ত নম্বরের তালিকা এখন‌ও প্রকাশিত হয়নি। তার‌ই মধ্যে নম্বর তালিকায় কারচুপির অভিযোগ ওঠায় পরিস্থিতি আর‌ও জটিল হয়ে উঠল‌। চাকরিপ্রার্থীদের একাংশের বক্তব্য, আগের পর্ষদ সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যের বদলে গৌতম পাল এলেও পরিস্থিতি যে বদলায়নি তা এই ঘটনা থেকে স্পষ্ট।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 দরকারে টেট পরীক্ষা বন্ধ করে দেব- বললেন বিচারপতি

🎯 টেটে ২১৫ জনের ৬ নম্বর করে বেড়ে গেল

🎯 রাজ্যের মডেল স্কুলে গ্রুপ-ডি এবং অতিথি শিক্ষক নিয়োগ