রাজ্যে দেউচা পাচামিতে ১ লক্ষ কর্মসংস্থান, ঘোষনা মুখ্যমন্ত্রীর- রইল বিস্তারিত

২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। কয়েক বছর ধরে রাজ্যে নতুন কোনো শিল্পের হদিশ তেমনভাবে পাওয়া যায়নি। এইবার মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যে একাধিক শিল্প নিয়ে কথা বলছেন। এইগুলি বাস্তাবায়িত হলে রাজ্যে বেকারত্ব অনেকটাই কমবে বলে মনে করা হচ্ছে। গত নভেম্বর মাসে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেউচা পাচামি কয়লা শিল্প সহ একাধিক শিল্পের বিষয়ে জানিয়েছেন। 

One Lakh Eployments in Deucha Pachami

বাংলায় নতুন নতুন শিল্পের প্রসার

আগামী দিনে পশ্চিমবঙ্গ দেশের অন্যতম বড়ো গন্তব্যস্থল হবে- এমনটাই জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আরো জানিয়েছেন- বাংলায় নতুন নতুন শিল্পের প্রসার ঘটতে চলেছে। পশ্চিমবঙ্গে সিলিকনভ্যালি তৈরি হচ্ছে। রাজ্যে চর্ম শিল্পেরও বিকাশ ঘটেছে। চেন্নাই, লখনৌ সহ ভারতের বিভিন্ন শহর থেকে শিল্প এসেছে। পুরুলিয়া জেলার  রঘুনাথপুরে 72 হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হচ্ছে। 

দেউচা পাচামিতে ৩৫ হাজার টাকা বিনিয়োগ 

বীরভূম জেলার মহম্মদবাজার ব্লকের দেউচা পাচামি কয়লা খনিতে ৩৫ হাজার টাকা বিনিয়োগ করবে রাজ্য সরকার। তৈরি হবে কয়লা শিল্প কেন্দ্র। এখানে কয়লা শিল্প গড়ে ওঠার কারণে রাজ্যে বিদ্যুৎ এর দাম কমবে, কর্মসংস্থান তৈরি হবে এবং আগামী ১০০ বছর রাজ্যে বিদ্যুতের কোনো সমস্যা হবে না। এমনই মত পোষন করেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

১ লক্ষ কর্মসংস্থান

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতে, দেউচা পাচামিতে কয়লা শিল্প কেন্দ্র গড়ে উঠলে ১ লক্ষ কর্ম সংস্থান সৃষ্টি হবে। এতে রাজ্যের শিক্ষিত এবং অশিক্ষিত সকল শ্রেনির মানুষরাই কাজ পাবে। তবে একটা প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে যে, কয়লা খনিতে ১ লক্ষ কর্মসংস্থান কিভাবে সম্ভব। শিল্প শুরু হওয়ার পরেই কর্মসংস্থানের সঠিক অংকটা জানা যাবে।  

চাকরি ও কাজের আপডেট মিস না করতে চাইলে আমাদের ‘টেলিগ্রাম চ্যানেলে’ যুক্ত হয়ে যান

এগুলোও পড়ুন-