প্রাইমারি টেট পরীক্ষার রেজাল্ট নিয়ে বিরাট সিদ্ধান্ত পর্ষদের, সবাই জানতে চাইছে- কি করে সম্ভব?

টেট পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে সরকারের মধ্যে একেবারে যুদ্ধকালীন তৎপরতা চলছে। সেই নিয়ে একের পর এক সমগ্র তথ্য সামনে উঠে আসছে। এক্ষেত্রে যেমন যেমন খবর আমরা পাচ্ছি ঠিক তেমনটাই আপনাদের সামনে তুলে ধরা হচ্ছে। তবে টেট নিয়ে সবচেয়ে বড় খবর হল, পরীক্ষা হয়ে যাওয়ার ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই ফল প্রকাশ করবে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ!

Primary Board's big decision on primary tet exam result

সত্যিই এতো দ্রুত টেটের রেজাল্ট প্রকাশিত হবে?

1/3: আগামী ১১ ডিসেম্বর এবারের টেট পরীক্ষা হবে। কিন্তু এর আগে যে কয়টি টেট পরীক্ষা হয়েছে সব ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে পরীক্ষার পর ফলপ্রকাশ হতে দীর্ঘদিন সময় লেগে গিয়েছে। ২০১৪ সালের টেট পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ ফল মাত্র সপ্তাহখানেক আগে প্রকাশ করেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। তাও সেটা সম্পূর্ণ নয়। ফলে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের কাজকর্ম নিয়ে চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই প্রশ্ন তৈরি হয়ে আছে। তবে এবার যাবতীয় দুর্নাম ঘোচাতে উঠে পড়ে লেগেছেন পর্ষদ সভাপতি গৌতম পাল (Goutam Pal)

2/3: বৃহস্পতিবার নবান্নে মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদির নেতৃত্বে প্রাথমিকের টেট পরীক্ষা নিয়ে এক উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হয়। সেখানে বিভিন্ন দফতরের কর্তাদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল। শিক্ষা দফতরের অন্যান্য কর্তারা থাকলেও যদিও ছিলেন না স্কুল শিক্ষা সচিব মনিশ জৈন

3/3: সেই বৈঠকেই পর্ষদ সভাপতি জানান, টেট পরীক্ষা হয়ে যাওয়ার ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে তাঁরা ফল প্রকাশ করে দেবেন। সূত্রের খবর পর্ষদ সভাপতির এই বক্তব্য নিয়ে সভায় বেশ কিছুক্ষণ আলোচনা হয়। তারপর এই দ্রুত ফল প্রকাশের সিদ্ধান্তে সিলমোহর দেন রাজ্য প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্তারা।

কী করে এতো দ্রুত টেটের রেজাল্ট প্রকাশ করবে?

1/3: ১১ ডিসেম্বর টেট পরীক্ষা হওয়ার মাত্র ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে পর্ষদের ফল প্রকাশের সিদ্ধান্ত নিয়ে কেউ কেউ বিস্মিত। কিন্তু শিক্ষা মহল এতে অবাক হচ্ছে না। সর্বভারতীয় স্তরের বিভিন্ন এন্ট্রান্স পরীক্ষা বা চাকরির পরীক্ষায় অনেক সময়ই এইরকম দ্রুত ফল প্রকাশ হতে দেখা গিয়েছে। আসলে ওএমআর শিটে পরীক্ষা হওয়ার কারণে কম্পিউটার চেকিং সিস্টেমের মাধ্যমে চাইলেই খুব দ্রুত নির্ভুল ফল প্রকাশ করা সম্ভব।

2/3: বিশেষজ্ঞদের মতে এবারের টেটের ফল দ্রুত প্রকাশ নিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা সাধুবাদ যোগ্য। তবে তাদের এই সিদ্ধান্তই প্রমাণ করে দিল ২০১৪ ও ২০১৭ টেট-এর ফলাফলও ইচ্ছে করলেই নির্ভুলভাবে দ্রুত প্রকাশ করতে পারতেন তখনকার পর্ষদ কর্তারা।

3/3: বৃহস্পতিবারের সভায় প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল জানিয়েছেন, এবার ৬ লক্ষ ৯০ হাজারের সামান্য বেশি পরীক্ষার্থী টেট পরীক্ষায় বসবেন। মোট ১৪৫৩ টি পরীক্ষাকেন্দ্রে পরীক্ষা নেওয়া হবে। নবান্নর বৈঠকে টেট পরীক্ষার দিন নিরাপত্তা ব্যবস্থায় জোর দেওয়ার পাশাপাশি পরিবহন ও বিদ্যুৎ পরিষেবাকেও নিরবিচ্ছিন্ন করার কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে সাঁতরাগাছিতে কাজ চালার বিষয়টি পরীক্ষার্থীদের যাতে সমস্যায় না ফেলে তা দেখার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 টেট পরীক্ষার দিন এই সমস্ত কাজগুলি নিষিদ্ধ

🎯 রাজ্যে DA আন্দোলনে ধরা খেলেন অনেকেই

🎯 ১১ ডিসেম্বরের টেট নিয়ে এবার সক্রিয় নবান্ন

🎯 রাজ্যে রেলে টিকিট কাউন্টারে চাকরি