উচ্চপ্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ এখনই হচ্ছে না, যা হবে ৩০ তারিখের পর- কেন জানুন!

1/8: এসসির নিয়োগ নিয়ে জট এখনই কাটছে না। একমাস আগে উচ্চপ্রাথমিকে কর্মশিক্ষা ও শরীরশিক্ষায় এসএসসির মাধ্যমে প্রায় ১২০০ শিক্ষক নিয়োগের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। এমনকি কাউন্সিলিংয়ের ভিত্তিতে শিক্ষকদের স্কুল বাছাইয়ের কাজও শুরু হয়ে যায়। কিছু চাকরিপ্রার্থীকে সুপারিশপত্র‌ও দিয়ে দিয়েছিল SSC।

2/8: কিন্তু সেই কাউন্সেলিংয়ে ডাক না পেয়ে এক চাকরিপ্রার্থী কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। তারপরই আদালতের নির্দেশে বন্ধ হয়ে যায় নিয়োগ প্রক্রিয়া। হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসুর নির্দেশে সেই নিয়োগ প্রক্রিয়ার উপর স্থগিতাদেশের মেয়াদ আরও খানিকটা বেড়ে গেল। ফলে এখনই কর্মশিক্ষা ও শরীরশিক্ষায় শিক্ষক নিয়োগ হচ্ছে না।

Recruitment of teachers in upper primary is not happening now

3/8: ২০১৬ সালে উচ্চ প্রাথমিকে শরীর শিক্ষা ও কর্ম শিক্ষার মাধ্যমে প্রায় ১২০০ শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করে এসএসসি। ২০১৭ সালে এর পরীক্ষা হয়। ২০১৮ সালে উত্তীর্ণ চাকরিরপ্রার্থীদের ইন্টারভিউ পর্ব‌ও সেরে ফেলে তারা। কিন্তু নিয়োগের চূড়ান্ত পর্ব শুরু হয় চলতি বছরের অক্টোবর মাসে

4/8: সেই সময় তারা বিজ্ঞপ্তি জারি করে প্যানেলভুক্তদের কাউন্সেলিংয়ের জন্য ডাকে। কিন্তু ওই কাউন্সেলিংয়ে ডাক না পেয়ে সোমা রায় নামে এক চাকরিপ্রার্থী নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অনিয়মের অভিযোগ তুলে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন।

5/8: সোমা রায় নামে ওই চাকরিপ্রার্থীর অভিযোগ, তিনি ৭২ নম্বর পেয়েও কাউন্সিলিংয়ে ডাক পাননি। অথচ তাঁর থেকে অনেক কম নম্বর পাওয়াদের চাকরি দেবে বলে কাউন্সেলিংয়ে ডেকেছে এসএসসি (WBSSC)। যদিও কলকাতা হাইকোর্টে প্রথমে ওই চাকরিপ্রার্থীর অভিযোগ খারিজ করে দেওয়ার চেষ্টা করেন এসএসসির আইনজীবী।

6/8: তিনি বলেন, ৭২ এর থেকে কম নম্বর পাওয়া যাদের ইন্টারভিউতে ডাকা হয়েছে তারা সকলেই এক্সেম্পটেড ক্যাটাগরির অন্তর্গত। এক্ষেত্রে নিয়ম মেনেই নম্বরের ছাড় দেওয়া হয়েছে। তাই এর মধ্যে কোন‌ও অনিয়ম বা ভুল নেই বলে এসএসসি দাবি করে। যদিও কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসু এসএসসির বক্তব্য খারিজ করে দিয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ জারি করেছিলেন। 

7/8: আদালতের স্থগিতাদেশের ফলে উচ্চপ্রাথমিকে শরীরশিক্ষা ও কর্মশিক্ষার শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে যায়। এবার দ্বিতীয় শুনানিতেও বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসু এই নিয়োগ প্রক্রিয়ার উপর স্থগিতাদেশ বজায় রাখলেন। তিনি জানিয়েছেন, আগামী ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত কর্মশিক্ষা ও শরীরশিক্ষার শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবে না এসএসসি।

8/8: হাইকোটে এসএসসির প্যানেল নির্বাচন পদ্ধতি এবং সুপার নিউমেরিক পোস্ট তৈরি করা নিয়ে মূল বিতর্ক তৈরি হয়েছে। কিন্তু এইসব টেকনিক্যাল কারণে বারবার নিয়োগ প্রক্রিয়া বিলম্বিত হওয়ায় চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে অসন্তোষ ও ক্ষোভ ক্রমশ বাড়ছে। তাঁদের একাংশের বক্তব্য, এসএসসি চাইলেই এই ত্রুটিগুলো শুধরে নিতে পারে। কিন্তু কেন তারা বারবার এক ভুল করছে বোঝা যাচ্ছে না।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 ধরা খেলো ১৮৩ ভুয়ো শিক্ষক, তালিকা প্রকাশ SSC-র

🎯 মমতা ব্যানার্জি স্কুলে ঢুকে ক্লাস নিলেন- সবাই অবাক

🎯 প্রশ্ন ফাঁসের ১ দিনের মধ্যেই কড়া পদক্ষেপ

🎯 রাজ্যের বিধানসভা ভবনে গ্রুপ-C চাকরি