টেট পরীক্ষা কেন্দ্রে ১৪৪ ধারা জারি করা হবে! পর্ষদ এই সমস্ত নতুন সিদ্ধান্ত নিল

বিতর্কে বিদ্ধ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ এবারের টেট পরীক্ষায় একটা মাছিও গলতে দিতে চায় না। তাই একের পর এক নজিরবিহীন পদক্ষেপ করছে। সেই তালিকায় নতুন সংযোজন হল ১৪৪ ধারা জারি করা। এর ফলে আগামী ১১ ডিসেম্বরের টেট পরীক্ষা সব দিক থেকেই আগের থেকে অনেকটা আলাদা হতে চলেছে। 

Section 144 will be issued at the TET examination center

টেটের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে পর্ষদের পদক্ষেপ

1/7: মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার সময় পরীক্ষাকেন্দ্রে ১৪৪ ধারা জারি করা থাকে। এর ফলে তার ১০০ মিটারের মধ্যে কোন‌ও ফটোকপির দোকান (জেরক্স বলা হয়) খোলা রাখা যায় না। এর পাশাপাশি পরীক্ষা চলাকালীন মাইক বা বক্স বাজানো, মিটিং মিছিল করা, উৎসব-অনুষ্ঠানও কঠোরভাবে নিষিদ্ধ থাকে।

2/7: এবারের টেট পরীক্ষায় প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার মতোই ১৪৪ ধারা জারি করায় এই সব বিধিনিষেধ টেটের দিনেও বলবত হবে। ফলে সামনে পঞ্চায়েত নির্বাচন থাকলেও টেট পরীক্ষার সকালে কোন‌ও রাজনৈতিক দল‌ই সভা-সমাবেশ করতে পারবে না।

3/7: এই বছর মোট ১৪৫৩টি পরীক্ষা কেন্দ্রে টেট পরীক্ষা নেওয়া হবে। তার সবগুলোতেই এই ১৪৪ ধারা নিয়ম মেনে বলব হবে বলে জানা গিয়েছে। বিষয়টি প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ প্রতিটি জেলার জেলাশাসক ও কলকাতার পুলিশ কমিশনারকে চিঠি পাঠিয়ে জানিয়েও দিয়েছে।

4/7: এমনিতেই পঞ্চায়েত নির্বাচনে এগিয়ে আসতে যেভাবে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা খারাপ হচ্ছে, তাতে পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তা আছে পর্ষদের। তাই পর্ষদ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে পরীক্ষা কেন্দ্রে পর্যাপ্ত পরিমাণ পুলিশকর্মী মোতায়েন রাখা হবে। অফিসার পর্যায়ের পুলিশকর্মী প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকবেন বলে পর্ষদ জানিয়েছে।

5/7: উল্লেখ্য, আগেই পরীক্ষা কেন্দ্রে মেটাল ডিটেক্টর, বায়োলজিক্যাল অ্যাটেনডেন্সের কথা জানিয়েছিল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। এবার পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও স্বাচ্ছন্দ নিয়ে একগুচ্ছ বিষয় জানানো হল পর্ষদের পক্ষ থেকে।

6/7: প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রে পুরুষ ও মহিলা উভয়ের জন্যই পর্যাপ্ত শৌচালয়ের ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি পানীয় জলের যাতে কোনরকম অভাব না হয় সেটিও নিশ্চিত করতে বলেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। এর পাশাপাশি প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যের কথা ভেবে অ্যাম্বুল্যান্স এবং চিকিৎসার ব্যবস্থা রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পরীক্ষা চলাকালীন বিদ্যুতের কোনরকম সমস্যা না হয় তার জন্য বিদ্যুৎ দফতরের সঙ্গেও কথা হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের।

7/7: এদিকে সূত্রের খবর, প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রশ্নপত্র পৌঁছনোর আগে থেকেই মোতায়েন হয়ে যাবে পুলিশ। পরীক্ষার দিন অর্থাৎ ১১ ডিসেম্বর পরীক্ষার্থীদের যাতায়াতের যাতে সমস্যা না হয় সেই বিষয়টি পরিবহন দফতরকে দেখতে বলেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। বিশেষ করে রাস্তায় যানজট এড়ানোর জন্য ট্রাফিক ব্যবস্থার দিকে বিশেষভাবে নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছে তারা।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 টেট পরীক্ষার সেন্টার নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল পর্ষদ

🎯 টেটের অ্যাডমিট কার্ড নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা পর্ষদের

🎯 রাজ্যের পৌরসভায় গ্রুপ-C, গ্রুপ-D পদে চাকরি

🎯 ৭১ হাজার নিয়োগপত্র তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী