রাজ্যের SSC গ্রুপ-সি চাকরি দুর্নীতি: ৩৮১ জনকে ধরে ধরে জেলে ভরার হুংকার CBI এর

যত দিন যাচ্ছে SSC-এর নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় CBI তদন্তের ফাঁস তত‌ই দৃঢ় হচ্ছে। এবার বেআইনিভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত সকলকে জেলে পোড়ার কথা বলল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এজেন্সিটি। বৃহস্পতিবার আলিপুর আদালতের SSC গ্রুপ-সি দুর্নীতি (SSC Group-C Corruption) মামলার শুনানি চলার সময় সিবিআইয়ের আইনজীবী এই দাবি করেন।

৩৮১ জনকে বেআইনিভাবে নিয়োগের চার্জশিট

এস‌এসসি দুর্নীতি নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি রঞ্জিৎ কুমার বাগের নেতৃত্বে একটি কমিটি গড়ে দেওয়া হয়। তারা তদন্তে নেমে এস‌এসসির গ্রুপ সি এর নিয়োগে বড় দুর্নীতির সন্ধান পায়। বাগ কমিটি রিপোর্টে উল্লেখ করে, মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ার পরেও ৩৮১ জনকে বেআইনিভাবে নিয়োগের সুপারিশপত্র পাঠানো হয়েছে। পরে আদালত এই দুর্নীতির তদন্তভার সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেয়। তারা তদন্তে নেমে দেখে, বাগ কমিটির রিপোর্ট সম্পূর্ণ ঠিক। সিবিআইয়ের পেশ করা চার্জশিটে তেমনটাই দাবি করা হয়েছে।

SSC Group C Job Corruption

বৃহস্পতিবার আলিপুর আদালতে এই এস‌এসসি গ্রুপ সি নিয়োগ দুর্নীতি মামলার শুনানি ছিল। সেখানেই সিবিআইয়ের আইনজীবী বলেন, যারা‌ই বেআইনিভাবে চাকরি পেয়েছে সবাইকে খুঁজে বের করে জেলে পুরতে চাই। ওরা বাইরে থাকা মানেই প্রমাণ লোপাট করবে। এই ৩৮১ জনের মধ্যে অনেকেই গা ঢাকা দিয়েছে। তাদের খুঁজে বের করতে হবে বলেও সিবিআই জানায়।

৩৮১ জনকে খুঁজে বের করা কিছুটা সময় সাপেক্ষ বিষয় তো বটেই। এদিকে সিবিআই আদালতে দাবি করে, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়, অশোক সাহার মতো যারা রাজ্য সরকারের উচ্চপদে ছিল, তাদের নাম চার্জশিটে রাখার বিষয়ে ছাড়পত্র চাওয়া হলেও রাজ্য তা দিচ্ছে না। এই নিয়ে শান্তিপ্রসাদ সিনহার আইনজীবী পাল্টা বলেন, সিবিআই সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটে দাবি করেছে এখনও তদন্ত বেশ কিছুটা বাকি। ফলে তদন্ত শেষ হ‌ওয়ার আগে রাজ্য সরকার কেন চার্জশিটে নাম রাখার অনুমতি দেবে সেই নিয়ে তিনি প্রশ্ন তোলেন।

পার্থর অবস্থা কী হল?

এই এস‌এসসি গ্রুপ সি নিয়োগ দুর্নীতি মামলাতেও প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত। তাঁকেও বৃহস্পতিবার আলিপুর আদালতে তোলা হয়। তাৎপর্যপূর্ণভাবে আর জামিনের আবেদন জানাননি পার্থর আইনজীবী। তিনি বিচারকের কাছে আবেদন জানান, তাঁর মক্কেলকে জেল হেফাজতে যেন ভালো চিকিৎসা পরিসেবা ও খাবার দেওয়া হয়।

এদিকে দুর্গাপুজো শেষ হ‌ওয়ার পরের দিন‌ই আদালতে তোলা হলেও পার্থ, কল্যাণময়দের লাভ কিছু হল না। দুর্গাপুজোর মতোই লক্ষ্মীপুজোটাও তাঁদের জেলের গারদের ওপারেই কাটাতে হবে। কারণ ফের ১৯ অক্টোবর পর্যন্ত পার্থ সহ এস‌এসসি কেলেঙ্কারিতে ধৃত ৬ জনের জেল হেফাজতের মেয়াদ বৃদ্ধির নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। 

👍 চাকরি ও কাজের আপডেট মিস না করতে চাইলে আমাদের ‘টেলিগ্রাম চ্যানেলে’ যুক্ত হয়ে যান

🔥 আরো গুরুত্বপূর্ন আপডেট 👇👇

🎯 রাজ্যে লক্ষ লক্ষ টাকা ঘুষ দিয়ে নিয়োগ- জড়িত থাকলেই হবে শাস্তি

🎯 রাজ্যে প্রাইমারি শিক্ষকদের চাকরির শুরুতে বেতন কত?

🎯 ১৫০ কোটির SSC দুর্নীতিতে পার্থ চট্টোপাধ্যায় সহ আরো ১৫ জনের নাম!