TET পরীক্ষার নোটিফিকেশন কবে বেরোবে? জানালেন পর্ষদ সভাপতি, স্বস্তির নিঃস্বাস চাকরিপ্রার্থীদের

দুর্নীতির তদন্ত শেষ না হলে কি শিক্ষক নিয়োগ হবে না? কবে হবে TET পরীক্ষা? আমাদের বয়স বেড়ে যাচ্ছে তো, এবার কী হবে? এমন অজস্র প্রশ্ন প্রতিমুহূর্তে ঘুরপাক খেয়ে বেড়াচ্ছে এই বাংলার চাকরিপ্রার্থীদের মনে। বিশেষ করে যারা শিক্ষক হিসেবে নিজেদেরকে কেরিয়ার গড়তে চান তাঁদের মধ্যে এই প্রশ্ন সবচেয়ে বেশি।

কারণ এসএসসি দিয়ে শুরু হলেও এখন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগেও একের পর এক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এবং উভয় ক্ষেত্রেই সিবিআই তদন্ত করছে। বড় বড় সব প্রাক্তন শিক্ষাকর্তা গ্রেফতার হয়ে যাচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে মনের মধ্যে অনিশ্চয়তা ও ভবিষ্যৎ সম্বন্ধে আশঙ্কা আর‌ও তীব্র হওয়ারই কথা। তবে শেষ পর্যন্ত এই আশঙ্কার মেঘ কেটে অনেকটাই স্বস্তির চিহ্ন খুঁজে পাওয়া গেল

TET Exam Notification Publish Time Declared By Board President

প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের নতুন সভাপতি গৌতম পাল সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দিয়েছেন নতুন টেট পরীক্ষা হচ্ছে। কবে সেই পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি বেরোবে সেই সংক্রান্ত ঘোষণাও তিনি করেন। স্বাভাবিকভাবেই টেট পরীক্ষার জন্য অপেক্ষা করতে থাকা চাকরি প্রার্থীরা কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন।

কবে হবে প্রাথমিকের TET পরীক্ষা?

প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের নবনিযুক্ত সভাপতি গৌতম পাল জানিয়েছেন, দুর্গাপুজোর আগে কোনমতেই আর টেট পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব নয়। কারণ গাঁটে গোনা আর কটা দিন মাত্র বাকি। তাই দুর্গাপুজোর পর্ব শেষ হলেই নতুন টেট পরীক্ষা নিয়ে সরকারি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে। সেখানেই ফর্ম ফিলাপের তারিখ, পরীক্ষার সম্ভাব্য সময় উল্লেখ করে দেওয়া থাকবে।

প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতির বক্তব্য থেকে একটা বিষয় পরিষ্কার, বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর ফর্ম ফিলাপ করে পরীক্ষা হতে হতে অন্ততপক্ষে নভেম্বর মাসের মাঝামাঝি হয়ে যাবে। তবে গৌতম পাল একইসঙ্গে জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে এবার থেকে প্রতি বছর নিয়ম করে টেট পরীক্ষা নেওয়া হবে। অতীতের মতো পরীক্ষা পদ্ধতি ও তার ফলাফল নিয়ে যাতে কোনরকম বিতর্ক তৈরি না হয় সেই দিকেও কড়া নজর রাখা হবে বলে পর্ষদ সভাপতি জানান।

এদিকে ২০১৭ সালের টেট পরীক্ষার ফলাফল বের হলেও উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীরা এখনও প্রাথমিক শিক্ষক পদে নিয়োগপত্র পাননি। এই নিয়ে তাঁদের মধ্যে যথেষ্ট ক্ষোভ আছে। বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে।

সেই নিয়ে নিষ্পত্তি হওয়ার আগেই প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ আবার একটি টেট পরীক্ষার তোড়জোড় শুরু করায় অনেকেই বিষয়টি ভালোভাবে দেখছেন না। এই নিয়ে ইতিমধ্যেই বিরোধিতার সুর তীব্র হতে শুরু করেছে। ২০১৭ সালের টেট উত্তীর্ণদের বক্তব্য, আগে তাঁদের নিয়োগ করা হোক। তারপর পরবর্তী টেট পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করুক সরকার।

👍 এই রকম চাকরি ও কাজের আপডেট মিস না করতে চাইলে আমাদের ‘টেলিগ্রাম চ্যানেলে’ যুক্ত হয়ে থাকুন।

🔥 আরো আপডেট 👇👇

🎯 বেসরকারি স্কুল শিক্ষকরাও পাবে সরকারি চাকরির মতো এই বিশেষ সুবিধা

🎯 চাকরি পাওয়ার আগে এই 7 টি কথা অবশ্যই মাথায় রাখুন

🎯 রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগের দুটো সুখবর একসাথে