টেট পরীক্ষার সেন্টার নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল পর্ষদ, সুবিধা হবে সব টেট পরীক্ষার্থীর

টেট পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড কবে দেওয়া হবে তা নিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ ইতিমধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়েছে। তবে টেট পরীক্ষার সেন্টার নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল পর্ষদ। যেকোনও ধরনের বিতর্ক এড়াতে এবার টেট পরীক্ষা কোনও ডিএলএড কলেজে না নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। শুধুমাত্র সরকারি স্কুল ও কলেজগুলিতে টেট পরীক্ষা হবে। যদিও এর আগে বিষয়টি সম্পূর্ণ অন্যরকম ছিল।

টেট পরীক্ষার সেন্টার সংক্রান্ত পর্ষদের এই বড়ো সিদ্ধান্তে অনেক টেট পরীক্ষার্থীর বিশেষ সুবিধা হবে। কীভাবে তারা এই সুবিধা পাবে তা আজকের প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনি তা জানতে পারবেন। তাই এই সম্পর্কে ভালো করে জানতে ও বুঝতে লেখাটি মনোযোগ সহকারে একবার পড়ুন।  

The board took a major decision about the TET exam center

টেট পরীক্ষার সেন্টার শুধুমাত্র সরকারি স্কুল-কলেজে

এর আগের প্রতিটি টেট পরীক্ষায় সরকারি স্কুল-কলেজের পাশাপাশি বেসরকারি ডিএলএড কলেজগুলিকেও ভ্যেনু হিসেবে নেওয়া হত। অর্থাৎ সেখানে পরীক্ষা কেন্দ্র হতো। কিন্তু রাজ্যের সম্প্রতি শিক্ষা দুর্নীতি তদন্তে একাধিক ডিএলএড কলেজের ভূমিকা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠেছে। তাই বিতর্ক এড়াতে এবারে টেটের পরীক্ষা কেন্দ্র হিসেবে ডিএলএড কলেজগুলোকে পুরোপুরি ছেঁটে ফেলা হয়েছে।

উল্লেখ্য ডিএলএড কলেজগুলির সেমিস্টার পরীক্ষার নিয়মও পরিবর্তন করে অন্যত্র নেওয়া হচ্ছে। জেলার স্কুল-কলেজগুলিতে সেই পরীক্ষার সিট পড়ছে। কারণ বেসরকারি ডিএলএড কলেজগুলি পরীক্ষার সময় ছাত্র-ছাত্রীদের অনৈতিকভাবে সাহায্য করত বলে অভিযোগ উঠেছে।

বাড়ির কাছাকাছি হবে টেট পরীক্ষাকেন্দ্র 

এবারের টেট পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ৭ লক্ষ। যা গত টেট পরীক্ষার থেকে প্রায় তিনগুণ বেশি। এই বিপুল সংখ্যক পরীক্ষার্থীর পরীক্ষার জন্য মোট ১৪০০ টি পরীক্ষাকেন্দ্র নির্বাচন করা হয়েছে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদগুলির পাঠানো তালিকা অনুযায়ী এই পরীক্ষাকেন্দ্র নির্বাচনের কাজ হয়েছে। ইতিমধ্যেই সব পরীক্ষাকেন্দ্র বেছে নেওয়ার কাজ শেষ। এক্ষেত্রে পরীক্ষার্থীরা যাতে বাড়ির কাছের পরীক্ষাকেন্দ্রেই পরীক্ষা দিতে পারেন তা নিশ্চিত করার চেষ্টা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ জানিয়েছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ধাঁচে ভ্যেনু অবজারভার

এদিকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ধাঁচে এবার টেট পরীক্ষাতেও ভ্যেনু অবজারভার বা কেন্দ্র পর্যবেক্ষক রাখার ব্যবস্থা করেছে পর্ষদ। এই সবকিছুই করা হচ্ছে টেট পরীক্ষাকে স্বচ্ছ করে তুলতে। কারণ নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে তাদের গায়ে যে কালি লেগেছে, এবারে সফল টেট আয়োজন করে তা ধুয়ে ফেলতে মরিয়া পর্ষদ কর্তারা। তার জন্য টেট পরীক্ষাকেন্দ্রে বায়োলজিক্যাল অ্যাটেন্ডেন্সের পাশাপাশি মেটাল ডিটেক্টর‌ও রাখছে। যাতে ক্যালকুলেটর, স্পিকারে সহ কোন‌ও ফিজিকাল গ্যাজেট নিয়ে কেউ প্রবেশ করতে না পারে।

এদিকে পরীক্ষার এক সপ্তাহ আগে থেকে অ্যাডমিট কার্ড দেওয়া হবে বলে পর্ষদ জানিয়েছে। অনলাইনে অ্যাডমিট ডাউনলোড করতে হবে।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 টেটের অ্যাডমিট কার্ড নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা পর্ষদের

🎯 বাজার থেকে ২০০০ টাকার নোট হঠাৎ করে উধাও, কিন্তু কেন? 

🎯 কেরিয়ার বাঁচাতে যুদ্ধভূমি ইউক্রেনে যেতেই হবে

🎯 ভেঙে দেওয়া হোক SSC কমিশন, বিচারপতির মন্তব্যে জল্পনা