২০১৭ এর টেট পাশরা অবশেষে নম্বর জানতে পারল, ২০১৪ এর টেট পাশেরা কবে জানবে?

1/7: কেউ ৬ বছর আগে টেট পাস করেছেন। আবার কেউ গত বছর টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। কিন্তু এই দুই দলের কেউই কত নম্বর পেয়েছিলেন তা এতোদিন জানতে পারেননি। মানে পরীক্ষায় পাস করেছেন তা জেনেছিলেন, কিন্তু প্রাপ্ত নম্বর কত সেই বিষয়ে সম্পূর্ণ ধোঁয়াশায় ছিলেন ২০১৪ ও ২০১৭ এর টেট পাস যোগ্য চাকরিপ্রার্থীরা। তবে অবশেষে তাঁদের সেই সমস্যার সমাধান হতে চলেছে।

2/7: সোমবার প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল (Goutam Pal) সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, এবার টেট উত্তীর্ণদের প্রাপ্ত নম্বর ঘোষণা করবেন তাঁরা। সেইসঙ্গে আশ্বাস দেন ভবিষ্যতে প্রাপ্ত নম্বর ঘোষণা করা নিয়ে আর কোন‌ও বিলম্ব হবে না। তবে ২০১৪ ও ২০১৭ এর নম্বর একই সঙ্গে ঘোষণা হচ্ছে না। 

The TET Pass of 2017 finally got to know the numbers

3/7: প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতির ঘোষণা মতো গত সোমবার রাতেই ২০১৭ এর টেট উত্তীর্ণদের প্রাপ্ত নম্বরের তালিকা ঘোষণা করা হয়েছে পর্ষদের ওয়েবসাইটে। সেখানে উত্তীর্ণদের নম্বর, রোল নম্বর অনুযায়ী তুলে দেওয়া হয়েছে।

4/7: উল্লেখ্য ২০১৭ সালের টেট পরীক্ষা হয়েছিল ২০২১ এর জানুয়ারিতে। তাতে পাস করেছিলেন ৯,৮৯৬ জন। তাঁদের সকলেরই নম্বর ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। তবে ২০১৪ এর টেট পাস চাকরিপ্রার্থীদের নম্বর ওই দিন ঘোষণা হয়নি। তাঁদের নম্বর ঘোষণা হতে আরও কিছুটা সময় লাগবে।

5/7: প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল জানিয়েছেন, ২০১৪ এর টেট পাসদের প্রাপ্ত নম্বরের তালিকা চলতি সপ্তাহের মধ্যেই ঘোষণা করার চেষ্টা করছে পর্ষদ। উল্লেখ্য ২০১৪ এর টেট পাসের সংখ্যা ২০১৭ এর থেকে অনেকটাই বেশি। পাশাপাশি আরও আগে পরীক্ষা হওয়ায় অনেক তথ্য এদিক ওদিক হয়ে থাকতে পারে বলে বিশেষজ্ঞ মহলের আশঙ্কা। তবে পর্ষদ সভাপতি নম্বর ঘোষণার আশ্বাস দেওয়ায় শেষ পর্যন্ত কোন‌ও সমস্যা হবে না বলেই আশা করছেন চাকরিপ্রার্থীরা।

6/7: ঘটনা হল, টেট পরীক্ষার নম্বরে কারচুপি, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে একাধিক মামলা দায়ের হয় কলকাতা হাইকোর্টে। এই নিয়ে সিবিআই ও ইডির তদন্ত চলছে। এই সময় টেট উত্তীর্ণদের প্রাপ্ত নম্বরের তালিকা ঘোষণা হয়নি জেনে বিস্মিত হয়ে যান বিচারপতি। পরে আদালত নির্দেশ দেয় অবিলম্বে ২০১৪ ও ২০১৭ এর টেট উত্তীর্ণদের প্রাপ্ত নম্বর ঘোষণা করতে হবে।

7/7: সদ্য নতুন শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার কথা ঘোষণা করেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ (WBBPE)। তারা ১১ হাজার ৭৬৫ জন শিক্ষক নিয়োগ করবে। এই নিয়োগ প্রক্রিয়ার শুরু হয়ে গেছে। কিন্তু টেটের প্রাপ্ত নম্বর না জানা থাকায় নানা সমস্যায় পড়েন চাকরিপ্রার্থীরা। পরে তাঁদের আরজি শুনে কলকাতা হাইকোর্ট দ্রুত নম্বর প্রকাশের নির্দেশ দেয় প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে। তার ফলেই অবশেষে প্রকাশিত হল উত্তীর্ণদের নম্বর তালিকা।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 “মুখ্যমন্ত্রীর দ্বায়িত্ব নয় চাকরি দেওয়া”

🎯 উচ্চমাধ্যমিক পাশে কোলকাতা বন্দরে চাকরি

🎯 দরকারে টেট পরীক্ষা বন্ধ করে দেব- ক্ষুব্ধ হয়ে বললেন বিচারপতি