Primary TET New Rule: প্রাইমারি ইন্টারভিউয়ে নম্বরের কারচুপি রুখতে এই নতুন নিয়ম, এবার আর কেউ বঞ্চিত হবে না

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে আর কোন‌ও মামলা-মোকদ্দমা নয়, এমনটাই লক্ষ্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের। তাই চলতি শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে তারা একের পর এক নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। গত ১১ ডিসেম্বর দীর্ঘ পাঁচ বছর পর প্রাথমিকের টেট (Primary TET) পরীক্ষা হয়। যা নজিরবিহীন নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপরই শুরু হয়েছে রাজ্যের প্রাথমিক স্কুলগুলিতে প্রায় সাড়ে ১১ হাজার শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া। যদিও এর সঙ্গে চলতি বছরের টেট পরীক্ষার সরাসরি কোন‌ও সম্পর্ক নেই।

প্রাথমিকের এই শিক্ষক নিয়োগ নিয়েই এবার কড়া অবস্থান নিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল (Goutam Pal)। নিয়োগ নিয়ে নতুন করে আর যাতে দুর্নীতির অভিযোগ না ওঠে তিনি সেটাই নিশ্চিত করতে চাইছেন। অতীতে বারবার অভিযোগ উঠেছে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ পর্বে ব্যাপক পক্ষপাতিত্ব হয়।

This new rule is to prevent manipulation of marks in primary interview

অনেক যোগ্য চাকরিপ্রার্থীকে সঠিক নাম্বার না দিয়ে অযোগ্যদের ইন্টারভিউয়ে নম্বর বাড়িয়ে দেওয়া হয়। তার ফলে যোগ্যরা চাকরি পাওয়া থেকে বঞ্চিত হন। এই অভিযোগ বন্ধ করতেই এবং এবারের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ পর্ব সম্পূর্ণ বিতর্কমুক্ত রাখতে নজিরবিহীন পদক্ষেপ করতে চলেছে প্রাইমারি শিক্ষা পর্ষদ (WBBPE)। 

ইন্টারভিউ নিয়ে নতুন কী পদক্ষেপ নিচ্ছে পর্ষদ?

1/4: প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম পর্যায়ের ইন্টারভিউ গত ২৭ ডিসেম্বর কলকাতায় হয়ে গেছে। এতোদিন জেলায় জেলায় এই ইন্টারভিউ হত। কিন্তু এবার গোটা প্রক্রিয়াকে স্বচ্ছ রাখতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে পর্ষদ। তবে ২৭ ডিসেম্বরের ইন্টারভিউ পর্বে তেমন কোন‌ও সমস্যা হয়নি। কিন্তু এর পরের দফাগুলোতে যাতে বিতর্ক দেখা না দেয় তাই পরীক্ষক, মানে যারা ইন্টারভিউ নেবেন তাঁদের জন্য কড়া বিধি আনতে চলেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

2/4: প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ জানিয়েছে, এবার শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউয়ের নম্বর সরাসরি প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সার্ভারে তুলে দিতে হবে ইন্টারভিউয়ের পরীক্ষকদের। এর ফলে একজন চাকরিপ্রার্থীর ক্ষেত্রে প্রথমে এক রকম নম্বর দিয়ে পরবর্তীতে সেটি মুছে নতুন নম্বর দেওয়ার আর কোনও সুযোগ থাকবে না।

3/4: প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের হার্ড কপিতে পরীক্ষকরা চাকরিপ্রার্থীদের যে নম্বর দেবেন সেটিও এবার থেকে পেনে লিখতে হবে। অতীতে এই নম্বর পেন্সিলে লেখা হত। ফলে প্রথমে দেওয়া নম্বর মুছে নতুন করে আবার নম্বর জুড়ে দেওয়ার একটা সুযোগ থাকতো। এরই ফাঁক গলে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি হয় বলে বিশেষজ্ঞরা বারবার অভিযোগ করেছেন। তাই এবার হার্ডশিটে পেনে নম্বর বসাতে হবে বলে পর্ষদ জানিয়েছে।

4/4: তবে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের এই সংক্রান্ত যাবতীয় নিয়ম পরবর্তী ইন্টারভিউগুলো থেকে মূলত প্রযোজ্য হবে। এদিকে জানা গিয়েছে আগামী জানুয়ারি মাসে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের বেশ কয়েক দফা ইন্টারভিউ হতে পারে। 

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরি ও কাজের আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন।  

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 এগুলোও পড়ুন 👇👇

🎯 এই সমস্ত জেলা থেকে ১৬৯৪ জনের চাকরি বাতিল

🎯 1458 শূন্যপদে HS পাশে হেড কনস্টেবল নিয়োগ

🎯 ১৫ জানুয়ারির মধ্যে ৮২ হাজার জনকে নতুন বছরের উপহার