কেরিয়ার বাঁচাতে যুদ্ধভূমি ইউক্রেনে যেতেই হবে, উপায় নেই বাংলার এই তরুনের

1/8: পশ্চিমবঙ্গ সহ গোটা ভারতবর্ষে ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন দেখে বহু ছেলে-মেয়ে। কিন্তু সরকারি মেডিকেল কলেজের সংখ্যা কম হওয়ায় এবং বেসরকারি মেডিকেল কলেজে পড়াশোনার খরচ অস্বাভাবিক বেশি হওয়ার কারণে খুব কম জনই সেই স্বপ্ন সত্যি করতে পারে। তবে এই স্বপ্ন সত্যি করার আরেকটি বিকল্প পথ আছে

2/8: আর সেই বিকল্প পথেই পা বাড়াতে গিয়ে আজ দেশের কয়েক হাজার ডাক্তারি পড়ুয়ার প্রাণ বিপন্ন। তাদেরই অন্যতম হাওড়ার আমতার মিখাইল আলম। কিন্তু মাঝপথে পিছু হাটার পথ যে নেই। তাই ঝুঁকি নিয়েই যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে ফিরে যেতে শুরু করেছেন মিখাইলরা।

To save his career, he must go to the battlefield Ukraine

3/8: পশ্চিমবঙ্গ সহ গোটা ভারতবর্ষে সরকারি মেডিকেল কলেজে ডাক্তারি পড়ার খরচ অত্যন্ত কম। এদিকে দেশের বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলি প্রায় এক থেকে দুকোটি টাকা করে নেয়। কিন্তু পূর্ব ইউরোপের দেশগুলিতে ডাক্তারি পড়াশোনার পরিকাঠামো যথেষ্ট ভালো।

4/8: সেখানে পড়তে গেলে ভারতীয় মুদ্রায় খরচ পড়ে ২০ থেকে ৪০ লাখ টাকা। তাই দলে দলে ভারতীয় ছেলে-মেয়েরা ইউক্রেন ও রাশিয়ায় ডাক্তারি পড়তে যায়। তবে ভারতের নিয়ম অনুযায়ী বিদেশে ডাক্তারি পড়লে দেশে ফিরে এসে সঙ্গে সঙ্গে কেউ রোগী দেখা শুরু করে দিতে পারে না। তার আগে তাদের একটি পরীক্ষা দিয়ে পাস করতে হয়।

5/8: পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোতে ডাক্তারি পড়ার এই কম খরচের কারণেই মিখাইল আলমের মতো বাংলা সহ দেশের অন্যান্য রাজ্যের বহু পড়ুয়া ইউক্রেনে গিয়েছেন। কিন্তু চলতি বছরের প্রথম দিকে হঠাৎই রাশিয়া ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে। আসলে এই দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে অনেকদিন ধরেই নানান বিষয় নিয়ে উত্তেজনা বাড়ছিল। কিন্তু তা বলে সরাসরি যুদ্ধ বেধে যাবে সেটা অনেকেই ভাবেননি।

6/8: এই রুশ সামরিক অভিযানের ফলে ইউক্রেনের দক্ষিণ ও পূর্বভাগ ধ্বংস হয়ে যায়। এক ভারতীয় পড়ুয়ার মৃত্যুও হয়। সে দেশের দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ শহর খারকিভে বহু ভারতীয় পড়ুয়া আটকে পড়েছিল। শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকার কোনরকমে ভারতীয় পড়ুয়াদের দেশে ফিরিয়ে আনে। সেই সময়ে কেন্দ্র ও রাজ্যের পক্ষ থেকে কোর্স মুলতবি রেখে দেশে ফিরে আসা ডাক্তারি পড়ুয়াদের জন্য কোন‌ও একটা ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল।

7/8: কিন্তু বাস্তবে সে সব কিছুই হয়নি। ইউক্রেনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ডাক্তারি পড়া নিয়ে কিছু নিয়ম কানুন আছে। তাই ভবিষ্যতের কথা ভেবে আর অপেক্ষা করা ঠিক হবে না বলে মনে করছে দেশে ফিরে আসা ডাক্তারি পড়ুয়ারা। তাদের মধ্যে মিখাইল আলমও একজন। তাই প্রাণের ঝুঁকি নিয়েই যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে পাড়ি দিয়েছে বাংলার এই তরুণ। তার অন্যান্য বন্ধুরাও ইতিমধ্যে ইউক্রেন পৌঁছে গিয়েছে।

8/8: উল্লেখ্য ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ এখনও থামেনি। পদাতিক সেনাকে সরিয়ে নিলেও মিসাইলের মাধ্যমে ইউক্রেনের একের পর এক শহরে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে রুশ সেনা। এই অবস্থায় ভারতীয় পড়ুয়াদের ইউক্রেনে ফিরে যাওয়াটা যথেষ্ট চিন্তার বলেই মনে করছেন শিক্ষাবিদরা।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো আপডেট- Click Here