Total TET Application: শেষ পর্যন্ত টেট পরীক্ষার জন্য রেকর্ড সংখ্যায় আবেদন জমা পড়ল! সঠিক সংখ্যাটা কত!

পূর্ব ঘোষণা মতো বৃহস্পতিবার, অর্থাৎ ৩ নভেম্বর মধ্যরাতে টেট পরীক্ষায় (TET Exam 2022) বসার আবেদন জানানোর সময়সীমা শেষ হয়েছে। ঐদিন ঠিক রাত ১২ টায় পর্ষদের পোর্টালে আবেদন জানানোর প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায়। টেটে বসার আবেদন জানানোর সময়সীমা যে বাড়ছে না তা জানিয়ে বৃহস্পতিবার সকালেই একটি নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। এখন প্রশ্ন হল শেষ পর্যন্ত কতজন টেট পরীক্ষায় আবেদন করলেন (Total Application for TET 2022)? 

Total Application for TET 2022

টেট ২০২২ এর জন্য মোট কতজন আবেদন করল?

1/3 প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ১১ ডিসেম্বর ২০২২ রাজ্যজুড়ে এবারের টেট পরীক্ষা আয়োজিত হবে। ২০১৭ সালে শেষ টেট পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি বেরিয়েছিল। তারপর এই বছর ২০২২-এ ফের টেট পরীক্ষা হচ্ছে। যদিও ২০১৭ সালের বিজ্ঞপ্তির ভিত্তিতে টেট পরীক্ষা আয়োজিত হয়েছিল ২০২১ এর ৩১ জানুয়ারি। সেদিক থেকে দেখতে গেলে পরের বছরই আবার টেট পরীক্ষা নিচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। তবে এবার পরীক্ষার্থীর সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে। 

2/3 ২০১৭ সালের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ২০২১ এ যে টেট পরীক্ষা হয়েছিল তাতে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা আড়াই লক্ষ বলে নবান্ন থেকে জানিয়েছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এবার নানান কারণে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। প্রাথমিক পর্ষদ সূত্রের খবর, এবারে টেট পরীক্ষায় বসার জন্য শেষ পর্যন্ত প্রায় ৭ লক্ষ চাকরিপ্রার্থী আবেদন জানিয়েছেন।

3/3 তবে আবেদন জানানোর সময়সীমা শেষ হওয়ার পর বেশ কিছু পরীক্ষার্থী সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন তাঁরা টেটে বসার জন্য আবেদন করতে পারেননি। দু’সপ্তাহেরও বেশি সময় দেওয়ার পরেও কেন তাঁরা আবেদন জানিয়ে উঠতে পারলেন না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে নানান মহলে।

টেটে আবেদনকারীর সংখ্যা বাড়ার কারণ কী? 

1/3 প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের কর্তারা মনে করছেন, গতবারের থেকে এবারের টেট পরীক্ষায় প্রায় তিনগুণ আবেদনকারীর সংখ্যা বাড়ার পিছনে একাধিক কারণ আছে। প্রথমত, এই প্রথম ডিএল‌এড (D.El.Ed) বিএড (B.Ed) পাঠরত অবস্থাতেই টেট পরীক্ষায় বসার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আরো একটি কারন হচ্ছে এবারের টেটে বিএড পাশেরাও আবেদন করতে পেরেছে, ফলে এইবার আবেদনকারীর সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে।

2/3 উল্লেখ্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের দাবি অনুযায়ী, এবারে টেট পরীক্ষা পুরোপুরি এনসিটিই-র নির্দেশিকা মেনে হচ্ছে। সেইমতো ফিজিক্যাল এডুকেশন বা শরীর শিক্ষায় ডিগ্রি, ডিপ্লোমা, সার্টিফিকেটধারীদেরও পরবর্তীতে টেট পরীক্ষায় বসার অনুমতি দেয় প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। যার ফলে আবেদনকারীর সংখ্যা বেশ কিছুটা বেড়েছে। সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৪০ বছর হলেও টেট পরীক্ষার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোনও বয়সসীমা না থাকায় অনেকেই বেসরকারি স্কুলে চাকরির ক্ষেত্রে সুবিধা হবে বলে টেট পরীক্ষায় বসছেন।

3/3 এই বছর ১৫০ নম্বরের টেট পরীক্ষার পুরোটাই মাল্টিপেল চয়েসধর্মী (MCQ) প্রশ্ন হবে। এর মধ্যে যাদের শিক্ষকতার অভিজ্ঞতা আছে তাঁরা উত্তর দেওয়ার ক্ষেত্রে অনেকটাই সুবিধা পাবেন বলে মনে করেন শিক্ষাবিদরা। সব মিলিয়ে এই বছর টেট পরীক্ষায় পাশের হারও বাড়বে বলে ধারণা প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের। উল্লেখ্য গত বছর আয়োজিত টেট পরীক্ষায় পাস করেছিলেন ৯,৮৯৬ জন চাকরিপ্রার্থী। এইবার সেই সংখ্যাটা কয়েকগুণ বাড়তে পারে বলে অনুমান পর্ষদ কর্তা থেকে শুরু করে শিক্ষা মহল সকলের।

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরির আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন। 

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 এগুলিও পড়ুন 👇👇

🎯 এই ৮ টি নতুন নিয়ম না জেনে টেট পরীক্ষা দিতে গেলেই বিপদ! 

🎯 ওয়েটিং লিস্টে নাম থাকা ১৪০৪ জনের চাকরি নিশ্চিত

🎯 আরআরসি কোলকাতা গ্রুপ-সি ও গ্রুপ-ডি নিয়োগ ২০২২

🎯 চাকরি পরীক্ষার নম্বর চুরি, আদালতের কড়া পদক্ষেপ!