রাজ্যে 7500 শুন্যপদে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ, বেতন সহ বিস্তারিত আপডেট জানুন

পশ্চিমবঙ্গে প্রায় 7500 শুন্যপদে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগের দারুন আপডেট পাওয়া গেছে। যারা অনেকদিন ধরে সরকারি স্কুলে শিক্ষকতা করতে ইচ্ছুক তাদের জন্য এটি সুবর্ণ সুযোগ হতে চলেছে। 

প্রথমেই জানিয়ে রাখি, এই আপডেটটি কোনোভাবেই ভুয়ো না। এটি উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ থেকে ঘোষনা করা হয়েছে।

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গে প্রায় 9 লক্ষ 50 হাজার মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী পাশ করেছে। সংখ্যাটা অনেক। এই কারনে রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে ছাত্রছাত্রীদের ভর্তিতে দারুন প্রভাব পড়েছে। 

পশ্চিমবঙ্গে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ 2022

WB 7500 School Teacher Recruitment Update

7500 শুন্যপদে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগের কারণ

আবারো জানিয়ে রাখি, রাজ্যে প্রায় 9 লক্ষ 50 হাজার পরীক্ষার্থী মাধ্যমিক পাশ করেছে। এই সংখ্যক পরীক্ষার্থী মাধ্যমিক পাশ করায় রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলগুলিতে উচ্চমাধ্যমিকে (একদশ শ্রেনিতে) ভর্তির চাপ বেড়েছে। যেকারনে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ স্কুলগুলিতে ভর্তির আসন সংখ্যা বাড়িয়ে 400 করেছে।

এর আগে প্রতিটি উচ্চমাধ্যমিক স্কুলে একাদশ শ্রেনিতে ভর্তির জন্য আসন সংখ্যা ছিল 275 টি। 2022 সালে তা বাড়িয়ে 400 করা হয়েছে। অর্থাৎ আসন সংখ্যা বেড়েছে 125 টি। 

এই অতিরিক্ত ছাত্রছাত্রীদের পড়ানোর জন্য স্কুলগুলিতে চাপ বেড়েছে। আর এই চাপ কমানোর একমাত্র উপায় হচ্ছে রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ

বর্তমানে রাজ্যে এত তাড়াতাড়ি এতোগুলো শুন্যপদে স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ করা সম্ভব না। যেকারনে রাজ্যে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। 

পশ্চিমবঙ্গে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত ঐ অস্থায়ী শিক্ষকেরা স্কুলে একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেনির ক্লাস নেবেন। এমনটাই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে। 

পশ্চিমবঙ্গে অস্থায়ী বা চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের বেতন

পশ্চিমবঙ্গে অস্থায়ী চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের মাসিক বেতন দেওয়া হয় 13,000 টাকা। আরো জানিয়ে রাখি, আমাদের রাজ্যে অতিথি শিক্ষক বা গেস্ট টিচাররা ক্লাস পিছু টাকা পেয়ে থাকেন। আর অন্যদিকে, পার্ট টাইম শিক্ষকদের প্রতি মাসে 8,000 (আট হাজার) টাকা করে দেওয়া হয়।  

শিক্ষক নিয়োগের জন্য বৈঠক

উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফ থেকে জানা গিয়েছে, আগামী ১০ জুন অর্থাৎ উচ্চমাধ্যমিকের রেজাল্ট প্রকাশের দিন একটি বৈঠক হবে। আর এই বৈঠকের আলোচনার মূল বিষয় থাকবে রাজ্যে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ

এদিনের বৈঠকে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য সহ সংসদের অন্যান্য সদস্যরাও উপস্থিত থাকবেন। 

উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য এই বৈঠকের কথা স্বীকার করেছেন এবং জানিয়েছেন,- ১০ জুন উচ্চমাধ্যমিকের ফল প্রকাশের কারনে ব্যস্ততার জন্য বৈঠকে কতটা সময় দিতে পারবো জানিনা। বর্তমানে উচ্চমাধ্যমিকে 60 টি বিষয়ের বিকল্প শিক্ষার্থীদের কাছে রয়েছে। অন্য কোনো রাজ্যে এতো সংখ্যক বিষয় পড়ানো হয় কি তা জানা নেই।

তিনি আরো জানিয়েছেন- এতো সংখ্যক বিষয় পড়ানোর জন্য রাজ্যে অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া চালু রয়েছে। আর এই বছর উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তির জন্য আসন সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় অতিরিক্ত শিক্ষক নিয়োগের প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। 

অস্থায়ী শিক্ষকের চাকরির সময়সীমা

এক বছরের চুক্তির ভিত্তিতে রাজ্যে অস্থায়ী চুক্তিভিত্তিক, পার্ট টাইম এবং অতিথি শিক্ষক বা গেস্ট টিচার নিয়োগ করা হবে। এক বছরের জন্য নিয়োগের কথা বলা হলেও যতদিন রাজ্যে স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ না করা হবে ততদিন তারাই স্কুলে ক্লাস নেবেন। 

রাজ্যে প্রায় 7500 শুন্যপদে অস্থায়ী বা চুক্তিভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া খুব তাড়াতাড়ি শুরু হয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে।

এই অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগের নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হলে বা নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হলে আমরা আমাদের এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনাকে জানিয়ে দেবো। 

চাকরি ও কাজের আপডেট মিস না করতে চাইলে আমাদের ‘টেলিগ্রাম চ্যানেলে’ যুক্ত হয়ে যান

Join Kajkarmo Telegram.jpeg

চাকরির আরো আপডেট-