২০২৩ সালে কর্মী নিয়োগ নিয়ে কি বলছে বিভিন্ন সংস্থা, জানুয়ারি-মার্চ মাসের সম্ভাবনা….

২০২৩ সালে বিভিন্ন সংস্থা বা কোম্পানি কর্মী নিয়োগ নিয়ে বিভিন্ন মন্তব্য পেশ করেছে। একজন চাকরির সন্ধানী হিসেবে বিষয়টি আপনার জানা দরকার বলে আমরা মনে করি। তাই বিষয়টি ভালো করে জেনে নেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। সেইসাথে আপনি আপনার বন্ধুবান্ধবদের সাথেও এটি শেয়ার করে দেবেন।

নতুন বছর শুরু হলেও বেসরকারি চাকরির কেরিয়ার নিয়ে এখনই সুখবর আসার সম্ভাবনা অত্যন্ত কম। বিশেষ করে যারা চাকরি খুঁজছেন তাঁদের জন্য এই মুহূর্তে সুখবর নেই বলা যেতে পারে। অন্তত বাজার বিশেষজ্ঞ সংস্থাগুলি তেমনই জানাচ্ছে।

তাদের একাধিক রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে, ভারতীয় আর্থিক বছরের শেষ ত্রৈমাসিকে (জানুয়ারি-মার্চ) নতুন চাকরি হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। বেসরকারি সংস্থাগুলো তো বটেই, এমনকি রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানিগুলিও নতুন কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে ধীরে চল নীতি নিয়ে চলছে।

What are different organizations saying about recruitment in 2023

2023-এ কি নতুন করে কর্মী ছাঁটাই শুরু হবে? 

1/5: বিশ্বজুড়ে অর্থনৈতিক মন্দার আশঙ্কা প্রকট হয়ে উঠছে। আমেরিকা ও ইউরোপের বেশিরভাগ দেশে চলতি বছর অর্থনীতি আশঙ্কা জনকভাবে সঙ্কুচিত হবে বলে বিশ্ব ব্যাঙ্ক, আইএমএফ-এর মত সংস্থাও তাদের পূর্বাভাসে জানিয়েছে। তবে ভারতীয় অর্থনীতির অবস্থা তুলনায় স্বাভাবিক জায়গায় থাকবে বলেই পূর্বাভাসগুলি থেকে জানা যাচ্ছে। কিন্তু বিশ্ব অর্থনীতির বেহাল অবস্থার ঝাপটা যে এদেশেও লাগবে তা বলাই বাহুল্য। আর বিশ্বায়নের যুগে এই ঝাপটা সামলাতেই এদেশের সরকারি-বেসরকারি সংস্থাগুলি আগাম সতর্ক হয়ে গিয়েছে বলে অর্থনীতিবিদদের ধারণা।

2/5: তবে এখনও পর্যন্ত যা পরিস্থিতি, তাতে ভারতবর্ষে নতুন করে গণহারে কর্মী ছাঁটাই হওয়ার আশঙ্কা খুব একটা নেই বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের মতে, চলতি বছর কর্মীদের বেতন বৃদ্ধি কম হতে পারে। তবে নতুন করে কাজ হারানোর সম্ভাবনা কম। যদিও আশঙ্কার আরেক দিক আছে।

3/5: বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দা থাবা ফেললে ভারতীয় সংস্থাগুলিও অতিরিক্ত নগদ ধরে রাখার জন্য নতুন কর্মী নিয়োগ বন্ধ করে দিতে পারে। চলতি ত্রৈমাসিকে তেমনই আশঙ্কার একটা আভাস পাওয়া যাচ্ছে। বেশিরভাগ সরকারি-বেসরকারি সংস্থাই বলছে তাদের ব্যবসার অবস্থা ভাল। তবে সেই কাজের চাপ সামলানোর মতো পর্যাপ্ত কর্মী ইতিমধ্যেই সংস্থা আছে। তাই মার্চ মাসের আগে নতুন কর্মী নিয়োগের সম্ভাবনা নেই বলেই দেশের বেশিরভাগ কোম্পানি জানিয়েছে।

4/5: তবে দেশের ১০ শতাংশ সংস্থা বলছে, যা পরিস্থিতি তাতে আগামী দিনে তারা কর্মীর ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটতে পারে! আবার ৪০ শতাংশ সংস্থা বলছে, চলতি ত্রৈমাসিক দেখে নিয়ে তারা এপ্রিল থেকে কর্মী নিয়োগের কাজ শুরু করবে। যদিও বেশিরভাগ সংস্থায়‌ই বর্তমান স্থিতাবস্থা বজায় রাখার পক্ষেই মত দিয়েছে।

5/5: তবে খুচখাচ কর্মী নিয়োগ যে হচ্ছে না তা নয়। এই যেমন দু’দিন আগেই জানা গেল অ্যাপেল (Apple) কোম্পানি ভারতে তাদের রিটেল চেন নতুন করে শুরু করছে। আর তার জন্য বেশ ভাল পরিমাণ কর্মী নিয়োগ করবে। তবে সার্বিকভাবে চাকরির বাজারের ছবিটা খুব একটা উজ্জ্বল নয়, বরং সেখানে আশঙ্কার অল্প অল্প মেঘ দেখা যাচ্ছে!

বিঃদ্র: নতুন কোনো চাকরি ও কাজের আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে যান। নিচে যুক্ত (Join) হওয়ার লিংক দেওয়া রয়েছে ঐ লিংকে ক্লিক করলেই যুক্ত হয়ে যেতে পারবেন। ওখানেই সর্বপ্রথম আপডেট দেওয়া হয়। আর আপনি যদি অলরেডি যুক্ত হয়ে থাকেন এটি প্লিজ Ignore করুন।  

Important Links:  👇👇
কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোনClick Here
✅ Telegram ChannelJoin Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 ইনফোসিস কোম্পানিতে নিয়োগ ২০২৩

🎯 প্রতি মাসে ৫০ হাজার ইনকাম এই ব্যাবসা শুরু করে

🎯 অ্যাকাডেমিক এবং নন টিচিং স্টাফ নিয়োগ