রাজ্যকে দ্রুত নিয়োগের নির্দেশ দিল হাইকোর্ট, PSC এর সমস্ত নিয়োগ স্বচ্ছ চাই

The High Court directed the state to speedily appoint, PSC wants all recruitment to be transparent

রাজ্য পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সব শূন্য পদ দ্রুত পুরণ করার প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টি এস শিভগননমের বেঞ্চের তরফে নির্দেশ দেওয়া হল।

আদালত জানিয়েছে, কমিশনের সব পদ পূরণ না হওয়ার জন্য হাজার হাজার চাকরিপ্রার্থীর নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে রয়েছে। ওই সমস্ত প্রার্থীরা কমিশনের দিকে তাকিয়ে আছেন। আদালত জানিয়েছে, কমিশনের উপরে যাতে সাধারণ মানুষের আস্থা থাকে, রাজ্য সরকারকে সেই ব্যবস্থা করতে হবে। বেঞ্চের সংযোজন, চাকরিপ্রার্থীদের নিয়োগ প্রক্রিয়া যাতে স্বচ্ছ হয়, সেদিকে নজর রাখতে হবে কমিশনের চেয়ারম্যান এবং অন্যান্য সদস্যদের। 

প্রসঙ্গত, গত কয়েক মাস ধরে সার্ভিচেয়ারম্যানস কমিশনের চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ছিল। শুধু তাই নয়, মোট সাত সদস্য থাকার কথা যে কমিশনে, তার মধ্যে সদস্য রয়েছেন মাত্র দুই জন। এর জন্য কমিশনের নিয়োগ প্রক্রিয়াও ব্যাহত হচ্ছিল। এই নিয়ে আদালতে মামলা হয়।

আদালতের তরফে অবিলম্বে চেয়ারম্যান পদ পূরণ করার নির্দেশ দেওয়া হয় রাজ্য সরকারকে। এর অন্যথা হলে, আদালতই চেয়ারম্যান পদে লোক বসাবে বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়। আদালতের এই হুমকির ঠিক পরেই অবসরপ্রাপ্ত আইএএস অফিসার মহুয়া বন্দ্যোপাধ্যায়কে চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ করে রাজ্য সরকার। 

পাশাপাশি, আইনজীবী শামীম আলী আদালতে দাবি তোলেন, এরপর থেকে কমিশনে নিয়োগ করার আগে বিজ্ঞাপন দিতে হবে। স্বচ্ছতা আনতে নিয়োগের ক্ষেত্রে। এর পরেই প্রধান বিচারপতি প্রশ্ন করে বসেন, কেন সন্দেহ করছেন? এই প্রসঙ্গে আইনজীবী জানান জানান, আগে এমন ঘটনা ঘটেছে।

কমিশনের নিয়োগের ক্ষেত্রে দুর্নীতি দেখা গিয়েছে আগেও। এর উত্তরে প্রধান বিচারপতি টি এস শিবজ্ঞানম বলেন, এটা সাংবিধানিক অফিস। তবে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনও বাঁধা নেই এবং দীর্ঘ শুনানি শেষে শূন্যপথ দ্রুত পূরণ করার প্রক্রিয়া শুরু চেয়ারম্যান করতে নির্দেশ দেন প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। এই প্রসঙ্গ টেনেই রাজ্যের তরফে অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত জানিয়ে দেন, আইন অনুযায়ী যাতে কাজ হয়ে সেটাই করা হবে।

রাজ্যের পাবলিক সার্ভিস কমিশন নিয়ে চাকরিপ্রার্থীদের অভিযোগ বহু এবং তা অনেক পুরোনো। কমিশনের মধ্যে চেয়ারম্যান পদ এবং অন্যান্য পদগুলি বহু দিন ধরে শূন্য আছে মাসের পর মাস। ফলত কমিশনের মাধ্যমে সরকারি চাকরি প্রায় হচ্ছেই না। এই সমস্ত কিছু মাথায় রেখেই প্রধান বিচারপতি কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছেন, সব নিয়োগ যত দ্রুত করা সম্ভব, সেই ব্যবস্থা নিতে।

বিঃদ্রঃ চাকরি এবং নতুন কোনো নিয়োগের আপডেট, কর্মসংস্থান আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে জয়েন হোন।

🔥 হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ: Join Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

👉 খাদ্য দপ্তরে DEO ও MTS পদে চাকরির বিজ্ঞপ্তি, লিখিত পরীক্ষা ছাড়াই নিয়োগ

👉 কলকাতা পুলিশ কনস্টেবলদের দ্রুত নিয়োগ, রাজ্যের এই ৩ জায়গায় চলছে ট্রেনিং

👉 মাধ্যমিক পাশে নেভেলি লিগনাইট কর্পোরেশনে নিয়োগ, ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত আবেদন চলবে

👉 ১৩৭৭ শূন্যপদে NVS এ নন টিচিং স্টাফ পদে নিয়োগ, অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করুন

👉 বরোদা ব্যাঙ্কে অফিস অ্যাসিস্টেন্ট পদে চাকরি, মাসিক বেতন ১৪ হাজার

Previous article৫৫০ শূন্যপদে রেল কোচ ফ্যাক্টারিতে নিয়োগ, মাধ্যমিক পাশে চাকরি
Next articleকেন্দ্রীয় বাহিনীর বঙ্গ কোটার ৫০০০ জনের চাকরি যাবে, বিজ্ঞপ্তি দিতেই হট্টগোল শুরু

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here