আইপিএস (IPS) অফিসার কিভাবে হওয়া যায় | IPS অফিসারের বেতন, কাজ, যোগ্যতা

বড়ো কোনো সরকারি পদে চাকরির ইচ্ছা কার না থাকে। আইপিএস (IPS) হচ্ছে ভারতের সরকারি চাকরির এমন একটি পদ যাতে দারুন সম্মান এবং মোটা মাইনে রয়েছে। অনেকের কাছে IPS এর চাকরি করা একটি স্বপ্ন। আর এই স্বপ্ন পূরন করা অসম্ভব কিছু না।

IPS এর চাকরির ইচ্ছা থাকলেও অনেকে এই চাকরি সম্পর্কিত সমস্ত বিষয় জানে না।নিচের সম্পূর্ন লেখা পড়লে আপনি IPS চাকরির সমস্ত তথ্য জানতে পারবেন। 

আজকের এই প্রতিবেদনে IPS চাকরি বিষয়ক সমস্ত তথ্য এক এক করে জানাবো। IPS চাকরির জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা কি লাগে, মাসিক বেতন কত দেওয়া হয়, IPS চাকরির জন্য কোন কোন পরীক্ষা দিতে হয়, নিয়োগ প্রক্রিয়া কিরুপ ইত্যাদি বিষয় গুলি নিচে থেকে এক এক করে জেনে নিন। 

IPS Officer Kivabe hoya Jai

IPS এর সম্পূর্ণ নাম কি?

IPS এর সম্পূর্ণ নাম বা Full Form হল- Indian Police Service, যেটাকে আমরা বাংলায় বলতে পারি- ভারতীয় পুলিশ পরিষেবা। 

IPS অফিসার কিভাবে হওয়া যায়?

প্রতি বছর মোটামুটি জানুয়ারি-মার্চ মাসের সময়ে IPS চাকরির পরীক্ষার জন্য ফর্ম ফিল আপ শুরু হয়। ইউনিয়ন পাবলিক সার্ভিস কমিশন (UPSC) এর মাধ্যমে আয়োজিত এই পরীক্ষার মাধ্যমে IPS পোষ্টের জন্য পরীক্ষা নেওয়া হয়। 

কয়েক লক্ষ পরীক্ষার্থী প্রতি বছর IPS সহ আরো উচ্চ পোষ্টের জন্য ফর্ম ফিল আপ করে এবং পরীক্ষায় বসে। তাদের মধ্যে থেকে উপযুক্ত ছেলে-মেয়েরাই IPS চাকরির জন্য নির্বাচিত হয়।

IPS এর চাকরি পাওয়া খুবই সহজ। এমনটা কিন্তু না। তবে কেউ যদি ঠিক করে নেয়, আমি IPS চাকরি করবই তাহলে তার কাছে এই চাকরি পাওয়া কিছুটা হলেও সহজ হয়ে যায়। কেননা ইচ্ছা শক্তির কাছে কোনো কিছুই অসম্ভব না। তবে পরিশ্রমও করতে হবে।  

চলুন এইবার আমরা IPS চাকরির বিভিন্ন পোষ্টগুলির নাম জেনে নিই-

IPS অফিসারের বিভিন্ন পোষ্ট 

  • Additional Commissioner of Police (ACP)
  • Additional Superintendent of Police (ASP)
  • Director General of Police (DGP)
  • Deputy Inspector of Police (DIP)
  • IPS Probationer 
  • Inspector General of Police (IGP)
  • Deputy Superintendent of Police (DSP)
  • Superintendent of Police (SP)
  • Senior Superintendent of Police (SSP)
  • Deputy Inspector General of Police (DIP) ইত্যাদি

IPS অফিসারের বেতন

পোষ্ট এবং র‍্যাঙ্ক অনুযায়ী IPS অফিসারের বেতনের ভিন্নতা লক্ষ্য করা যায়। একজন IPS অফিসারের মাসিক বেতন হয়ে থাকে 56,100 থেকে 2,25,000 টাকা। 

IPS অফিসারের যোগ্যতা

শিক্ষাগত যোগ্যতা-

স্বীকৃতিপ্রাপ্ত যেকোনো ইউনিভার্সিটি থেকে যেকোনো বিষয় নিয়ে গ্র্যাজুয়েশন পাশ করা থাকলেই UPSC এর মাধ্যমে IPS এর চাকরির পরীক্ষা দেওয়া যায়। তাছাড়াও B.Com, B.Sc, BCA, ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিক্যাল ডিগ্রি করা থাকলেও আবেদন করা যাবে।

বয়সসীমা- 

  • General- 21 থেকে 32 বছর 
  • OBC- 21 থেকে 35 বছর 
  • SC/ST- 21 থেকে 37 বছর 

শারীরিক যোগ্যতা

উচ্চতা- 

General SC/ST
ছেলে (Male)165 সেন্টিমিটার 160 সেন্টিমিটার
মেয়ে (Female)150 সেন্টিমিটার145 সেন্টিমিটার

বুকের মাপ- 

ছেলে (Male)84 সেন্টিমিটার
মেয়ে (Female)79 সেন্টিমিটার 

দৃষ্টিশক্তি (Eyesight)- 

IPS পদের জন্য সাধারন চোখের ক্ষেত্রে দৃষ্টিশক্তি 6/6 অথবা 6/9 এবং দুর্বল চোখের ক্ষেত্রে দৃষ্টিশক্তি 6/12 অথবা 6/9 হওয়া আবশ্যিক। 

নিয়োগ প্রক্রিয়া

তিনটে পরীক্ষার মাধ্যমে IPS পদের চাকরিতে নিয়োগ করা হয়ে থাকে, এগুলি হল- 

(১) প্রিলিমিনারি পরীক্ষা (Preliminary Examination)

(২) মেন পরীক্ষা (Main Examination)

(৩) ইন্টারভিউ (Interview)

(১) প্রিলিমিনারি পরীক্ষা- 400 নম্বরের MCQ টাইপের প্রশ্নের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয়। এক্ষেত্রে জেনারেল স্টাডিজ এর দুইটি পেপার থাকে। প্রতিটি পেপারে 200 করে নম্বর থাকে। 

(২) মেন পরীক্ষা- মেন পরীক্ষা হয় 1750 নম্বরের। মোট পেপার থাকে 9 টি। 

  • 2 টি পেপার থাকে কুয়ালিফাইং পেপার। এই দুই পেপারে মোট নম্বর থাকে 600 (300+300)। 
  • 5 টি পেপার থাকে জেনারেল স্টাডিজ পেপার। 
  • 2 টি পেপার থাকে কম্পালসারি। 

(৩) ইন্টারভিউ- প্রিলিমিনারি এবং মেন পরীক্ষায় পাশ করার পর 275 নম্বরের নির্নায়ক ইন্টারভিউ নেওয়া হয়। এই ইন্টারভিউতে কয়েকজন প্রশ্নকর্তা থাকেন। যারা প্রায় ৪৫ মিনিট মতো সময় ধরে IPS চাকরিপ্রার্থীকে বিভিন্ন প্রশ্ন করে থাকেন।

মোট নম্বর

  • মেন পরীক্ষার মোট নম্বর 1750
  • ইন্টারভিউয়ে থাকে 275 নম্বর
  • মেন পরীক্ষা এবং ইন্টারভিউয়ের মোট নম্বর 2025  

IPS অফিসারের ট্রেনিং

প্রিলিমিনারি, মেন পরীক্ষা এবং ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর একটি মেরিট লিস্ট প্রকাশিত হয়। ঐ লিস্টের র‍্যাঙ্ক অনুযায়ী IPS চাকরি হয়ে থাকে। র‍্যাঙ্কের ভিত্তিতে IPS সহ IAS, IFS, IRS ইত্যাদি পোষ্টে নিয়োগ করা হয়। 

মেরিট লিস্ট প্রকাশিত হওয়ার পর সমস্ত নির্বাচিত চাকরি প্রার্থীদের লাল বাহাদুর শাস্ত্রী রাষ্ট্রীয় প্রশাসনিক অ্যাকাডেমি বা LBSNAA তে পাঠানো হয়। এখানে তাদের ছয় মাসের ট্রেনিং করানো হয়।

এরপর হায়দ্রাবাদে সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল পুলিশ অ্যাকাডেমিতে ট্রেনিং হয়। এখানে আইন সংক্রান্ত এবং বিচার বিভাগীয় বিভিন্ন ট্রেনিং করানো হয়। 

IPS অফিসারের কাজ

একজন IPS অফিসার আইন সংক্রান্ত বিভিন্ন কাজের সাথে যুক্ত থাকেন, এগুলি হল নিম্নরূপ- 

  • IPS যেহেতু একটি উচ্চপদস্থ পুলিশের পোষ্ট, তাই এর কাজ হল আইন শৃঙ্খলা রক্ষা করা এবং বিভিন্ন অপরাধ দমন করা।
  • কুখ্যাত অপরাধীদের গ্রেফতার করার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা IPS অফিসারের অন্যতম একটি কাজ।
  • অপরাধ্মূলক কাজ দমন করার পাশাপাশি মাদক চক্র, নারী পাচার, মাওবাদী দমন ইত্যাদির মতো কাজ করতে হয়। 
  • অভিজ্ঞতাসম্পন্ন এবং কুশলী IPS অফিসারদের CBI, RAW, IB ইত্যাদির মতো সংস্থায় নেতৃত্বের কাজে নিয়োগ করা হয়। 

সবশেষে

IPS অফিসার কিভাবে হওয়া যায় এবং IPS চাকরি নিয়ে আমাদের এই লেখাটি থেকে আপনি অবশ্যই অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। IPS এর চাকরির বিষয়ে জানার জন্য আপনাকে ইন্টারনেটের অন্য কোথায় যেন না যেতে হয়, এটাই আমাদের উদ্দেশ্য। 

তবুও যদি আপনার মনে IPS চাকরি নিয়ে কোনো প্রশ্ন থেকে যায় তাহলে আমাদের অবশ্যই জানাবেন। আর চাকরি ও কাজের আপডেট, চাকরির বিভিন্ন তথ্যের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত ভিজিট করতে ভুলবেন না।