৩৫,০০০ শূন্যপদে অঙ্গনওয়াড়িতে কর্মী নিয়োগের আপডেট

Anganwadi Recruitment Update for 35,000 Vacancies

শুক্রবার বিধানসভায় প্রশ্নোত্তরপর্বে রাজ্যের নারী ও শিশুকল‌্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী শশী পাঁজা জানালেন, বর্তমানে রাজ্যের অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রগুলোতে প্রায় 35 হাজার শূন‌্যপদ রয়েছে। ইতিমধ্যেই সেই শূন্যপদগুলিতে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এর ফলে বহু সংখ্যক মহিলা চাকরি পেতে চলেছেন।

শশী বলেন, অঙ্গনওয়াড়িতে নিয়োগের বিষয়ে কেন্দ্রের নীতি বদলের কারণে রাজ্যের নিয়োগ প্রক্রিয়া ব‌্যাহত হয়েছে। তাঁর কথায়, “রাজ্যে মোট 1 লক্ষ 19 হাজার 481 টি অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র রয়েছে। তার মধ্যে কর্মীপদ ফাঁকা রয়েছে 21 হাজার 492 টি এবং সহায়িকা 13 হাজার 906 টি। একাধিক জেলায় সেই শূন‌্যপদ পূরণের কাজ শুরু হয়েছে। মাঝে কেন্দ্র নিয়ম পালটেছিল। তাতে নিয়োগ ধাক্কা খায়।”

আগে নিয়ম ছিল অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে কর্মী পদে নিয়োগ করার জন্য, মহিলাদের অবশ‌্যই উচ্চমাধ‌্যমিক পাস করতে হবে, অন্যদিকে, সহায়িকা পদে নিয়োগ করার জন্য প্রার্থীদের এইট পাস হতে হত। তবে, মাঝে নিয়ম বদলে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়, উভয় পদের জন‌্যই উচ্চমাধ্যমিক বা সমতুল্য পাস হতে হবে।

কেন্দ্রের এই নিয়মের বিরুদ্ধে তখন অনেকেই প্রশ্ন করেন, যিনি রান্না করবেন, তিনিও যদি দ্বাদশ শ্রেণি পাশ করেন, আবার যিনি পড়াবেন, তাঁর শিক্ষাগত যোগ‌্যতাও একই কী করে রাখা হয়? পরবর্তীতে কেন্দ্রের তরফে বলা হয়, যারা আগেই অষ্টম শ্রেণী পাশ করে সহায়িকা পদে যোগদান করেছিলেন, তাঁদের 10 বছর চাকরির মেয়াদ হয়ে গেলে তাঁরা কর্মীপদে কাজে যোগ দিতে পারবেন।

এছাড়াও, আগে নিয়োগের জন্য বয়সসীমা ছিল 18-45 বছর, পরে তা কমিয়ে 18-35 করা হয়েছে। এর বিরুদ্ধেও প্রতিবাদ জানানো হয়। তবে কেন্দ্রের তরফে নতুন নিয়মে কোনো বদল আনা হয়নি। তাই বর্তমানে নতুন নিয়মেই নিয়োগ প্রক্রিয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গেত উল্লেখ্য, অঙ্গনওয়াড়ি প্রকল্পের মোট খরচের 60 ভাগ দেয় কেন্দ্র এবং বাকি 40 ভাগ দেয় রাজ্য সরকার। তবে, এই নির্দিষ্ট খরচের বাইরেও রাজ্য কর্মী-সহায়িকাদের মাসিক ভাতার জন্য মাথাপিছু যথাক্রমে  3,7504,050 টাকা করে দেয়। ফলত, রাজ্যের অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীরা বর্তমানে 8,350 টাকা এবং সহায়িকারা 6,300 টাকা করে ভাতা পাচ্ছেন।

শশী ওই দিন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে উদাসিনতার অভিযোগও তোলেন। তিনি বলেন, মিড-ডে মিলের টাকা 2017 সাল থেকে বাড়ায়নি কেন্দ্র। এখনও 8 থেকে 12 টাকার মধ্যেই দৈনিক বরাদ্দ ঘোরাফেরা করছে। তবে এই সময়ের মধ্যে জিনিসপত্রের দাম অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে ওই দামের মধ্যে পরিষেবা দেওয়া সমস্যাজনক হয়ে পড়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

বিঃদ্রঃ চাকরি এবং নতুন কোনো নিয়োগের আপডেট, কর্মসংস্থান আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে জয়েন হোন।

🔥 হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ: Join Now

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

👉 ১০২৫ শূন্যপদে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে নিয়োগ! নিয়োগ পদ্ধতি ও আবেদন পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

👉 কলকাতা মেট্রো রেলওয়ে গ্রুপ-সি চাকরি, শিক্ষাগত যোগ্যতা উচ্চ মাধ্যমিক পাশ

👉 ৫৬৭ শূন্যপদে মাল্টি টাস্কিং স্টাফ নিয়োগ, ৮ মার্চ পর্যন্ত আবেদন চলবে

👉 New Teacher Recruitment: ৭০,০০০ শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগ, জানুন বিস্তারিত আপডেট

👉 গ্রাম পঞ্চায়েতে আদায় সরকার নিয়োগ, শিক্ষাগত যোগ্যতা মাধ্যমিক পাশ

Previous article১০২৫ শূন্যপদে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে নিয়োগ! নিয়োগ পদ্ধতি ও আবেদন পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন
Next articleIAS অফিসারের নিয়োগ পদ্ধতি ও মাসিক বেতন কত?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here