DCA কম্পিউটার কোর্স কি? কোর্স করে চাকরির সুযোগ | DCA Course Details in Bengali

DCA কম্পিউটার কোর্স কি, এই কোর্স করতে কত টাকা লাগবে, কোর্সের পর কি কি কাজ (JOb) করা যাবে?– ইত্যাদি বিষয়গুলি সম্পর্কে আজকের এই আর্টিকেলে বিস্তারিত জানাবো।

DCA কম্পিউটার কোর্সের সমস্ত তথ্য বিশেষ করে DCA কোর্সের সুবিধা, সেইসাথে এই কোর্স করলে কি কি চাকরি পাওয়া যাবে ইত্যাদি সম্পর্কেও আজকের এই আর্টিকেলে আপনি জানতে পারবেন।

DCA কোর্স সম্পর্কে অনেকেই সঠিক তথ্য জানেনা। তাই তারা এই কোর্স করবে কি করবে না এবং এই কোর্স করলে ভবিষ্যতে তারা কি কি কাজ করতে পারে সে সম্পর্কে তাদের জানা থাকে না। এই কারনে তাদের জন্য আজকের এই প্রতিবেদন। আপনিও যদি DCA কম্পিউটার কোর্স সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি প্রথম থেকে শেষ অবধি পড়ুন।

বর্তমানে কম্পিউটার এর ব্যবহার কি হারে বেড়েছে তা আপনাকে আলাদা করে বলবো না। আপনিও যদি DCA কোর্স করেন তাহলে কোর্স ঠিকভাবে সম্পূর্ন করার পরে যেকোনো একটি চাকরি পেয়েই যাবেন। 

DCA Course Details in Bengali

একটা কথা আপনাকে স্পষ্ট জানিয়ে দিই, আপনি যদি কম সময়ের মধ্যে শুধুমাত্র DCA কোর্সের সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্য এই কোর্স করেন তাহলে আপনি চাকরি (Job) পেতে সমস্যার সম্মূখীন হবেন। কেননা যে কোনো কোম্পানি আপনার সার্টিফিকেট দেখার পাশাপাশি আপনার কাজের দক্ষতাও বিচার করবে। 

DCA Computer Course Details in Bengali

DCA কোর্স সম্পর্কে বিস্তারে জানার আগে আমরা DCA এর সম্পূর্ন নাম (Full Form) জেনে নেবো।

DCA Full Form in Bengali

DCA এর সম্পূর্ণ নাম বা Full Form হলো- Diploma in Computer Application.

DCA কোর্সের সময়সীমা (DCA Course Duration)

DCA কোর্স 6 মাস থেকে 12 মাস বা 1 বছর পর্যন্ত হয়ে থাকে। কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান 6 মাস এর মধ্যে এই কোর্স সম্পূর্ণ করে থাকে। আবার এমন অনেক প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা 1 বছর সময়ের মধ্যে DCA কম্পিউটার কোর্স সম্পূর্ণ করে থাকে। এই কোর্স করার পরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে আপনি চাকরির যোগ্য হয়ে উঠতে পারেন।

DCA কোর্স 1 বছরের মেয়াদে সম্পূর্ন করাই ভালো। এতে আপনি অনেক কিছু ভালো করে শিখতে পারবেন। 

DCA কোর্সের ফি (DCA Course Fee)

DCA কম্পিউটার কোর্সের জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন অংকের টাকা ফি হিসাবে নিয়ে থাকে। কোনো প্রতিষ্ঠান 5000 টাকা, কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান 10,000 বা কোনো প্রতিষ্ঠান আবার 25,000 টাকা পর্যন্ত এই কোর্সের ফি হিসেবে ছাত্র-ছাত্রী দের কাছ থেকে নিয়ে থাকে।

অর্থাৎ, এই কোর্স করার জন্য আপনাকে ৫-২৫ হাজার টাকা খরচ করতে হতে পারে। 

DCA কোর্স করার জন্য যোগ্যতা (DCA Course Educational Qualification)

এই কোর্স করার জন্য আপনাকে অবশ্যই যেকোনো স্বীকৃতিপ্রাপ্ত বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করতে হবে।

তাই আপনি যদি মাধ্যমিক অথবা উচ্চমাধ্যমিক পাশ হয়ে থাকেন DCA কম্পিউটার কোর্সে ভর্তি হতে পারবেন। 

DCA কম্পিউটার কোর্স কোথায় করা যাবে?

DCA কোর্সে ভর্তি হওয়ার জন্য আপনাকে আপনার নিকটবর্তী কোনো কম্পিউটার ট্রেনিং প্রতিষ্ঠানে যোগাযোগ করতে হবে। সেখানে গিয়ে DCA কোর্স করানো হয় কিনা তা ভালো করে জেনে নিতে হবে। 

এক্ষেত্রে কম্পিউটার ট্রেনিং প্রতিষ্ঠানটি সরকার স্বীকৃত কিনা এবং তার সার্টিফিকেট বিভিন্ন জায়গায় কাজে লাগানো যাবে কি না তাও ভালো করে খোঁজ নিতে হবে। 

DCA কোর্সের সিলেবাস- কি কি শেখানো হয়? (DCA Course Syllabus)

কম্পিউটার সম্পর্কিত প্রায় সমস্ত বিষয় এই কোর্সের মাধ্যমে শেখানো হয়। এই কোর্সে অন্যতম উদ্দেশ্য হলো একজন ব্যক্তিকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে চাকরির উপযোগী করে তোলা। আপনি যদি এই কোর্স করেন তাহলে যেকোনো অফিসে কাজ পেয়ে যাবেন।

এই কোর্সের সিলেবাস এবং ঠিক কি কি বিষয় শেখানো হয় তা নিচে থেকে দেখে নিন-

(1) কম্পিউটার ফান্ডামেন্টাল (Computer Fundamental- Basic)

(2) অপারেটিং সিস্টেম (Operating System)

(3) MS Office (MS Word, Power Point, MS Excel ইত্যাদি)

(4) Programming Language- C, C++, Html

(5) ওয়েব ডিজাইনিং (Web Designing)

(6) মাল্টিমিডিয়া অ্যান্ড গ্রাফিক্স ডিজাইনিং (Multimedia And Graphic Designing)

(7) অ্যাডভান্সড ইন্টারনেট (Advanced Internet)

(8) ট্যালি- অ্যাকাউন্টিং (Tally- Accounting)

(9) E বিজনেস (E Business)

(10) সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং (Software Engineering)

(11) আইটি সিকুরিটি (IT Security)

(12) ডাটাবেস ডিজাইনিং (Database Designing)

DCA কোর্স করার পর চাকরির সুযোগ (DCA Course Job and Career Opportunity)

DCA কম্পিউটার কোর্স করার পর আপনি বিভিন্ন ক্ষেত্রের চাকরিতে জয়েন করতে পারেন পারেন। এই কোর্সের একটি সুবিধা হচ্ছে, এতে অনেক বিষয়ে জানা যায়। যা কোনো না কোনো চাকরি পেতে সাহায্য করে। একবার এই কোর্স কমপ্লিট করলে আপনি নিচের দেওয়া বিভিন্ন কাজের সাথে নিজেকে যুক্ত করতে পারেন।

1.ডাটা এন্ট্রি অপারেটর (Data Entry Operator)

আজকের দিনে ডাটা এন্ট্রি অপারেটর (Data Entry Operator) একটি অন্যতম জনপ্রিয় চাকরি (Job)। এই কাজের লোক নিয়োগের জন্য বিভিন্ন সময়ে বিজ্ঞপ্তি বের হয়ে থাকে।

DCA কম্পিউটার কোর্স কমপ্লিট করার পর আপনি ডাটা এন্ট্রি অপারেটর হিসেবে কাজের জন্য উপযোগী হয়ে উঠবেন। এমন অনেকে আছেন যারা শুধুমাত্র ডাটা এন্ট্রির চাকরি করার জন্য DCA কোর্স করেন।

2. কম্পিউটার অপারেটর (Computer Operator)

এই কোর্সে বেসিক কম্পিউটার ফান্ডামেন্টাল এবং ইন্টারনেট সম্পর্কে শেখানো হয়। যেকারনে আপনি একজন কম্পিউটার অপারেটর এর চাকরি পেতে পারেন। 

3. ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এন্ড ডিজাইনিং (Web Development And Designing)

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এবং ডিজাইনিং অর্থাৎ ওয়েবসাইট তৈরীর কাজ এই কোর্সের মাধ্যমে শেখানো হয়। তাই এই কাজের ফিল্ডে আপনি চাকরি করতে পারেন। সেই সাথে আপনি চাইলে এই কাজ শিখে ফ্রিল্যান্সিং এর মতো কাজও করতে পারবেন।

4. প্রোগ্রামিং ডিজাইনিং এবং ডেভেলপমেন্ট (Programming Designing and Development)

এই কম্পিউটার কোর্সে বিভিন্ন কম্পিউটার ল্যাঙ্গুয়েজ যেমন C, C++, Html ইত্যাদি শেখানো হয়। এগুলো শেখার পর আপনি ডিজাইনিং, প্রোগ্রামিং এবং ডেভেলপমেন্টের ক্ষেত্রেও চাকরি পেতে পারেন।

5. গ্রাফিক্স ডিজাইনিং (Graphics Designing)

বেসিক গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এর কাজ এই কোর্সে শেখানো হয়। তাই DCA কোর্স করার পর গ্রাফিক ডিজাইনিং এর বেসিক শিখে এবং তারপর ভালো জ্ঞান অর্জন করে যে কোনো প্রতিষ্ঠানে গ্রাফিক ডিজাইনার হিসেবেও চাকরি করতে পারবেন।

শুধু তাই নয়, আপনি চাইলে নিজেও গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এর কাজের সার্ভিস দিয়ে ভালো টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

6. টাইপিস্ট এর চাকরি (Typist Job) 

DCA কোর্স করে আপনি একজন ভালো টাইপিস্ট হতে পারেন। ইংরেজি, হিন্দি বা বাংলা যেকোনো ভাষাতেই হোক না কেন, আপনি যদি ভালো কম্পিউটার টাইপ করতে পারেন তাহলে টাইপিস্ট এর চাকরি করতে পারবেন। 

7. অ্যাকাউন্ট্যান্ট (Accountant)

ট্যালি (Tally) এর কাজ ভালো করে শিখে আপনি একজন অ্যাকাউন্ট্যান্ট হিসেবে যেকোনো কোম্পানি বা সংস্থায় কাজে যোগ দিতে পারেন। এই কম্পিউটার কোর্স করলে আপনি ট্যালি (Tally) শিখে কেরিয়ার গড়তে পারেন। 

সবশেষে,

DCA কম্পিউটার কোর্স (DCA Computer Course in Bengali) নিয়ে লেখা আজকের এই আর্টিকেল এখানেই শেষ হলো। আশা করছি আজকের এই কম্পিউটার কোর্স সম্পর্কিত তথ্য থেকে আপনি অনেক নতুন কিছু জানতে পেরেছেন।

শেষে একটি কথা আবারো বলবো, DCA কোর্স করার আগে আপনি এমন কোনো কম্পিউটার ট্রেনিং প্রতিষ্ঠান এর খোঁজ করবেন যেখানে ভালো করে এই কোর্স শেখানো হয়। আর চেষ্টা করবেন ১ বছরের জন্য এই কোর্সটি করতে। কম সময়ে এত কিছু শিখতে আপনার সমস্যা হতে পারে। তবে আপনি চাইলে ৬ মাসের মধ্যেও এই কোর্স শেষ করতে পারেন। 

প্রতিদিনের চাকরির আপডেট, বিভিন্ন কর্মমুখী কোর্স, কর্মসংস্থান, কেরিয়ার ইত্যাদি বিষয়ে নিজেকে আপডেট রাখতে আমাদের এই kajkarmo ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করতে পারেন।

যেকোনো চাকরি ও কাজের আপডেট মিস না করতে চাইলে আমাদের ‘টেলিগ্রাম চ্যানেলে’ যুক্ত হয়ে যান

Join Kajkarmo Telegram.jpeg

এগুলোও পড়ুন-