ED কিভাবে হওয়া যায়? ইডি (ED) অফিসারের কাজ, ক্ষমতা, মাসিক বেতন | How To Become ED in Bengali

ইডি (ED) কিভাবে হওয়া যায়, ED কি কাজ করে, এর ক্ষমতাই বা কি, ED হওয়ার জন্য কি করতে হবে ইত্যাদি বিষয়গুলি আজকে আমরা এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে বিস্তারিত জানতে চলেছি। শেষ পর্যন্ত এই আর্টিকেলটি পড়লে ED সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার নিশ্চিত ধারনা হয়ে যাবে।

আমরা টিভিতে বিভিন্ন নিউজ চ্যানেলে ED (ইডি) সম্পর্কে খবর দেখে থাকি। অমুক জায়গায় ED তল্লাশি চালিয়ে এতো কোটি টাকা উদ্ধার করেছে- এই ধরনের নিউজ আমরা প্রায়ই আমাদের চোখে পড়ে।

সম্প্রতি আমাদের রাজ্য পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখার্জীর কেসের ক্ষেত্রেও ED এর তদন্তে ৫০ কোটি টাকা উদ্ধার হয়েছে। 

এই সমস্ত হাই প্রোফাইল কেসের কারনেই ইডি (ED) অফিসারের বিষয়টি আমাদের চোখে পড়ে এবং ED সম্পর্কিত একাধিক প্রশ্ন আমাদের মাথায় ঘুরপাক খায়। তাই আজকের আর্টিকেলে ইডি অফিসারের কাজ, তাদের ক্ষমতা, মাসিক বেতন এবং কিভাবে ইডি অফিসার হওয়া যায়– এগুলি নিয়ে এক এক করে বিস্তারে আলোচনা করবো। 

ED Officer Full Details in Bengali

ED Officer Details in Bengali

আপনাকে জানিয়ে রাখি, ED (ইডি) হচ্ছে গ্রুপ-B অফিসার র‍্যাঙ্কের চাকরি। এটি কেন্দ্র সরকারের অধীনস্থ মিনিস্ট্রি অফ ফাইন্যান্সের (Ministry of Finance) একটি আর্থিক তদন্তকারী সংস্থা।

এটি ভারতের এমন একটি গুরুত্বপূর্ন সংস্থা, যা ভারতে বিদেশি সম্পত্তি সংক্রান্ত মামলা, মানি লন্ডারিং (Money Laundering), আয়ের থেকে বেশি সম্পত্তি থাকার বিষয়ে তদন্ত করে থাকে।

ED এর সম্পূর্ন নাম কি? (ED Full Form in Bengali)

ED কথার সম্পূর্ন নাম (Full Form)- Enforcement Directorate বা Directorate of  Enforcement যার বাংলা অর্থ ‘আর্থিক তদন্তকারী সংস্থা’। 

ED-ইডি কি? (What is ED in Bengali)

ইডি-ED হচ্ছে ভারতের আর্থিক তদন্তকারী সংস্থা। দেশের কোনো জায়গায় বা ব্যাক্তি বিশেষের মাধ্যমে অর্থনৈতিক তছরূপ হলে ইডির অধীনে কর্মরত বিভিন্ন অফিসাররা তদন্ত শুরু করে। অভিযুক্ত কোনো ব্যাক্তির বাড়িতে, অফিসে Raid করে হিসাব বহির্ভুক্ত টাকা অর্থাৎ কালো টাকা উদ্ধার করে থাকে ED।

ED এর কাজ (What is the Work Of ED) 

ED মূলত অর্থনৈতিক অপরাধমূলক কাজ দমনের কাজ করে। ভারতে হিসাবের বাইরের বিদেশি সম্পত্তি হোক কিংবা মানি লন্ডারিং এর মতো অপরাধ প্রতিরোধ সহ আরো যেসমস্ত কাজ ইডি করে থাকে সেগুলি হলো-

(1) Foreign Exchange Management (FEMA) আইনের লঙ্ঘন হলে ইডি তদন্ত করে।

(2) টাকা পয়সার লেনদেন বিষয়ক তদন্ত করে থাকে ED।

(3) বিদেশি সম্পত্তি বা ফরেন এক্সচেঞ্জ (Foreign Exchange) এর সাথে জড়িত কোনো মামলার তদন্তের কাজ করে ইডি।

(4) FEMA আইনের লঙ্ঘনের কারনে দোষী সাব্যস্তদের সম্পত্তিকে বাজেয়াপ্ত করার ক্ষমতা ইডির কাছে থাকে। 

(5) ভারতের বাইরে অন্য কোনো দেশে সম্পত্তি কিনলেও তার সমস্ত তদন্তের কাজ ইডির মাধ্যমে হয়।

ED এর মূখ্য কার্য্যালয় (ED Headquarter and Offices)

দিল্লিতে ED এর মূখ্য কার্য্যালয় রয়েছে। এছাড়া ভারতের পাঁচটি শহরে এর রিজিওনাল অফিস রয়েছে- এগুলি হলো কোলকাতা, মুম্বাই, দিল্লি, চেন্নাই এবং চন্ডীগড়। 

ED কিভাবে হওয়া যায়? (How to Become ED)

ইডি অফিসার পদে চাকরির নিয়োগ মূলত দুই ভাবে হয়ে থাকে-

(1) সরাসরি SSC CGL (Combined Graduate level Exam) পরীক্ষার মাধ্যমে। 

(2) কেন্দ্র সরকারের অফিসার র‍্যাঙ্কের কোনো চাকরির পদোন্নতির মাধ্যমে।

ইডি নিয়োগ প্রক্রিয়া (ED Recruitment Process)

SSC CGL পরীক্ষার মাধ্যমে ইডি নিয়োগ প্রক্রিয়া- 

  • Tier-1 পরীক্ষা (200 নম্বর)
  • Tier-2 পরীক্ষা (200 নম্বর)
  • Tier-3 পরীক্ষা (100 নম্বর)
  • Document Verification (নথিপত্র যাচাইকরণ)

ইডি অফিসারের মাসিক বেতন (ED Officer Salary)

একজন ইডি অফিসারের মাসিক বেতন শুরু হয় 60,000 টাকা থেকে। পরে কাজের সময়সীমা এবং অভিজ্ঞতা বাড়ার সাথে সাথে বেতন বাড়ে।

ইডি চাকরির বয়সসীমা (ED Age Limit)

ED অফিসার হওয়ার জন্য প্রার্থীর বয়স অবশ্যই 20-27 বছরের মধ্যে থাকতে হবে। বয়সের ক্ষেত্রে ST, SC শ্রেনিরা ৫ বছরের, OBC শ্রেণিরা ৩ বছরের ছাড় পেয়ে থাকেন। PWD শ্রেণির প্রার্থীরা এই চাকরির জন্য আবেদনযোগ্য নয়। 

ইডি চাকরির যোগ্যতা (ED Eligibility Criteria)

(1) সরকারি স্বীকৃতিপ্রাপ্ত যেকোনো ইউনিভার্সিটি থেকে গ্র্যাজুয়েশন পাশ হতে হবে।

(2) ED হওয়ার জন্য প্রার্থীকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হয়।

(5) সেইসাথে, ইডি অফিসার হওয়ার জন্য প্রার্থীকে চালাক, ধুর্ত হতে হয় এবং সেইসাথে মানুষকে বোঝার বিশেষ ক্ষমতা থাকতে হয়। 

সবশেষে,

ইডি অফিসার সম্পর্কে লেখা আজকের এই আর্টিকেলটি সমাপ্ত হলো। আশা করছি ED সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় গুলি আপনি বুঝতে পেরেছেন। যতটা সম্ভব ইডি এজেন্সির তথ্য সহজ ভাষায় বোঝানোর চেষ্টা করেছি, আপনি যদি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন তাহলে আজকের এই লেখার উদ্দেশ্য সফল।

প্রতিদিনের চাকরির আপডেট, কর্মসংস্থান, কেরিয়ার গাইড ইত্যাদি বিষয়ে নিজেকে আপডেট রাখতে চাইলে আমাদের ওয়েবসাইট kajkarmo.com নিয়মিত ভিজিত করতে ভুলবেন না। 

চাকরির আপডেট সবার আগে পেতে আমাদের ‘টেলিগ্রাম চ্যানেলে’ যুক্ত হোন 

Join Kajkarmo Telegram.jpeg

এগুলিও পড়ুন-