উচ্চশিক্ষায় মেয়েদের নিরাপত্তায় বিশেষ নজর UGC-এর, প্রতিটি কলেজকেই মানতে হবে এই নিয়ম

যতই আমরা সমানাধিকারের কথা বলি না কেন আজও নানান ক্ষেত্রে মহিলাদের পিছনের দিকে ঠেলে দেওয়া হয়। শিক্ষাঙ্গনও এর ব্যাতিক্রম নয়। সেখানে ছাত্রীদের পাশাপাশি শিক্ষিকাদেরও নানানভাবে কোণঠাসা করা হয় বলে বারে বারে অভিযোগ উঠেছে। এবার সেই পরিস্থিতির বদল আনতে তৎপর হয়ে উঠল ইউজিসি।

দেশের উচ্চশিক্ষা ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারক সংস্থা হল ইউনিভার্সিটি গ্রান্ট কমিশন (UGC) বা বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন। উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে নারীদের আরও সুরক্ষিত রাখতে তারা একগুচ্ছ পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করেছে। এই লক্ষ্যে একটি গাইডলাইনও ঘোষণা করেছে ইউজিসি। 

দেশের প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় এবং অনুমোদিত কলেজে নারী নিরাপত্তা নিয়ে ইউজিসি তাদের তৈরি করা গাইডলাইন পাঠিয়ে দিয়েছে। যেখানে পরিষ্কার বলা হয়েছে, “শিক্ষাঙ্গনে সকলের বিশেষত মহিলাদের নিরাপত্তা ও হিংসা মুক্ত পরিবেশ দিতে ইউজিসি দায়বদ্ধ।”

UGC has a special focus on the safety of girls in higher education

মহিলাদের নিরাপত্তার বিষয়ে কী আছে ইউজিসির গাইডলাইনে?

ইউজিসি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এবং উপাচার্যদের কাছে নির্দেশিকা পাঠিয়ে এই গাইডলাইনের বিষয়গুলি পরিষ্কার করেছে। সেখানে লেখা আছে, আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তির সময়ই তাদেরকে একটি করে হ্যান্ডবুক দিতে হবে। যেখানে প্রয়োজনীয় সমস্ত ফোন নম্বর লেখা থাকবে।

কলেজের বা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারনাল কমপ্লেন কমিটির (ICC) সদস্য কারা, তাদের যোগাযোগের নম্বর, হেল্পলাইন নম্বর, মেডিকেল এমার্জেন্সি নম্বর, ক্যান্টিন-রেজিস্টারের নম্বর, স্থানীয় থানার ফোন নম্বর ইত্যাদি সবকিছুই বিস্তারিত লিখে রাখতে হবে।

নারী নিরাপত্তার জন্য প্রতিটি কলেজকে  সিসিটিভির আওতায় আনা

সেই সঙ্গে প্রতিটি কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত জায়গাকে সিসিটিভির আওতায় আনার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে কোনরকম গাফিলতি যাতে না থাকে সেই দিকে কড়া নজর দিতে বলা হয়েছে।

এর পাশাপাশি প্রতিটি উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নাল কমপ্লেন্ট কমিটি বা আইসিসি থাকতেই হবে বলে পরিষ্কার জানানো হয়েছে। প্রয়োজনে কোন‌ও ছাত্রী বা শিক্ষিকা যাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাহায্যে কাউন্সিলিংয়ের সুবিধা পান সেই বিষয়টির দিকেও নজর দিতে বলা হয়েছে।

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের লেডিস টয়লেটের মানোন্নয়নের নির্দেশ দিয়েছে ইউজিসি। পাশাপাশি মফস্বল ও গ্রামে অবস্থিত ক্যাম্পাস আরও সুরক্ষিত করতে বলা হয়েছে। এর জন্য শক্তপোক্ত বাউন্ডারি ওয়াল দিয়ে সবটা ঘিরে দিতে নির্দেশ দিয়েছে ইউজিসি।

এর পাশাপাশি সব উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গার্লস হোস্টেল আবশ্যিক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইউজিসি স্পষ্ট জানিয়েছে, ছাত্রী বা অধ্যাপিকারা অসচ্ছন্দ বোধ করেন এমন কিছুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাখা চলবে না বা করা যাবে না।

নারী নিরাপত্তায় তাদের জারি করা এই গাইডলাইনের বিষয়ে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মতামত চেয়ে পাঠিয়েছে ইউজিসি। এ বিষয়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে আগামী ১৪ নভেম্বরের মধ্যে তাদের মতামত জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপে জয়েন হোন- Click Here

👍চাকরি ও কাজের আপডেট মিস না করতে চাইলে আমাদের ‘টেলিগ্রাম চ্যানেলে’ যুক্ত হয়ে যান

Join Kajkarmo Telegram.jpeg

🔥 আরো চাকরির আপডেট 👇👇

🎯 এই সমস্ত নিয়ম না মানলে টেট পরীক্ষা পরীক্ষা বাতিল

🎯 প্রাইমারি টেট নতুন অফিসিয়াল সিলেবাস 2022 প্রকাশিত হলো

🎯 বাড়িতে থেকেই 24,500 টাকা বেতনে ইনফোসিসে কাজের সুযোগ