এই বদ অভ্যাসের কারনে মাধ্যমিকের রেজাল্ট আটকে দেবে পর্ষদ! ছাত্র-ছাত্রীদের সতর্ক করছে সমস্ত স্কুল

আর ঠিক একমাস পর শুরু হবে মাধ্যমিক পরীক্ষা (Madhyamik Exam 2023)। ফলে পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুতি মোটামুটি শেষ। এখন রাজ্যের প্রায় ১০ লক্ষ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর সকলেই শুধু পড়া জিনিসে আর একবার চোখ বুলিয়ে নিচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই সকলের আশা, পরীক্ষা শুরু হলেই তারা ভালোভাবে উত্তর লিখবে আর ভালো নম্বর পাবে। কিন্তু মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের পাশাপাশি অভিভাবকদের‌ও জেনে রাখা প্রয়োজন, এবার ছেলেমেয়ে ভালো করে পরীক্ষা দিলেও তার রেজাল্ট আটকে দিতে পারে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ!

অবাক হবেন না, পর্ষদের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে এই বিষয়টা নিশ্চিত করা হয়েছে। তারা বলেছে, নির্দিষ্ট কিছু ঘটনা ঘটলে সে যে যত ভালই নম্বর পাক বা যত নামকরা স্কুলই হোক না কেন, তাদের মার্কশিট বা রেজাল্ট আটকে দেওয়া হবে!

The board can withhold the results of Madhyamik

কেন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর রেজাল্ট আটকে দেবে পর্ষদ?

1/7: মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর রেজাল্ট আটকে দেওয়া নিয়ে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের এই ঘোষণা ইতিমধ্যেই সাড়া ফেলেছে। তবে বহু মানুষ পর্ষদের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। কারণ তাঁদের মতে, দিনের পর দিন পরীক্ষার প্রশ্ন নিয়ে অভিযোগ তুলে বা স্রেফ টোকাটুকিতে বাধা পেয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে ভাঙচুর চালানোর যে রীতি রাজ্যের কয়েকটি জেলায় চলে আসছে তা এবার বন্ধ হওয়া দরকার।

2/7: আসলে প্রায় প্রতিবছরই নিয়ম করে দেখা যায় মালদহ, মুর্শিদাবাদ, উত্তর দিনাজপুর কিছু ক্ষেত্রে উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার কিছু অংশে মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্রে শেষ পরীক্ষার দিন পরীক্ষার্থীরা টিউব লাইট, সিলিং ফ্যান, স্কুলের দরজা-জানালা, বেঞ্চ ভাঙচুর করে।

আরো আপডেট: রাজ্যে মেধাশ্রী প্রকল্পে ২ লক্ষের বেশি ছাত্রছাত্রী টাকা পাবে

3/7: মাধ্যমিক পরীক্ষার নিয়ম হচ্ছে, পরীক্ষার্থীরা নিজের স্কুলের বদলে অন্য স্কুলে গিয়ে পরীক্ষা দেয়। ভাঙচুর হলে যে স্কুলে পরীক্ষাকেন্দ্র পড়ে তাদের বেশ মোটা অঙ্কের আর্থিক ক্ষতি সহ নানান সমস্যার মুখে পড়তে হয়। এটার‌ই কড়া হাতে মোকাবিলা করতে চেয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

4/7: মধ্যশিক্ষা পর্ষদ জানিয়েছে, এবার থেকে পরীক্ষার্থীরা মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্রে ভাঙচুর চালালে তার দায় যে স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা করবে সংশ্লিষ্ট সেই স্কুলকেই বহন করতে হবে। এর জন্য সেই স্কুলকে ভাঙচুর করা স্কুলের হাতে দাবি মত ক্ষতিপূরণ তুলে দিতে হবে। চাইলে অভিযুক্ত ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে সেই অর্থ স্কুল আদায় করতে পারে বা নিজের ফান্ড থেকে দিতে পারে। কিন্তু পরীক্ষার রেজাল্ট বেরোনোর আগে এই ক্ষতিপূরণ জমা দেওয়ার বিষয়টির না ঘটলেই বিপদ হবে বলে পর্ষদ জানিয়েছে।

5/7: কারণ এই বছর থেকে পরীক্ষাকেন্দ্রের ক্লিয়ারেন্স লাগবে সেখানে সিট পড়া অন্যান্য স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের বিষয়ে। যে যে স্কুলের ক্লিয়ারেন্স থাকবে না তাদের ছেলেমেয়েদের মার্কশিট আটকে দেবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। এক্ষেত্রে ভাঙচুর করা হলে এবং তার ক্ষতিপূরণের অর্থ জমা না দিলে পরীক্ষাকেন্দ্র যে নো অবজেকশন সার্টিফিকেট বা ক্লিয়ারেন্স দেবে না তা সহজেই বোঝা যাচ্ছে।

আরো আপডেট: মাধ্যমিক পরীক্ষার নজরদারি চলবে রিয়েল টাইম অ্যাপে

6/7: মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এই বছর প্রতিটি মাধ্যমিক পরীক্ষা কেন্দ্রে জিআই ট্যাগিং করে স্যাটেলাইটের মারফত পরীক্ষার প্রথম দিনের ছবি এবং পরীক্ষা শেষের পরের ছবি তুলে রাখবে। সেইসঙ্গে পরীক্ষা কেন্দ্রে ভাঙচুর, কোনরকম গণ্ডগোলের ঘটনা ঘটছে কিনা সেই বিষয়েও ভেনু সুপারভাইজারদের কড়া নজরদারি চালাতে বলা হয়েছে। মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষের পর মধ্যশিক্ষা পর্ষদ ছবি মিলিয়ে দেখবে কোন‌ও স্কুলে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে কিনা।

7/7: এই উদ্দেশ্যে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ প্রতিটি স্কুলকে বলেছে, তাদের ছাত্র-ছাত্রীদের সতর্ক করে দিতে যাতে এবার পরীক্ষাকেন্দ্রে ভাঙচুর বা টুকলির চেষ্টা তারা না করে। না হলে রেজাল্ট আটকে যাওয়ার ষোলো আনা সম্ভাবনা থাকবে।

আরো আপডেট: এবারের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা আগেকার নিয়মে হবে

Important Links:  👇👇👇👇

কাজকর্ম WhatsApp গ্রুপJoin Now
✅ Telegram ChannelJoin Now

Join Kajkarmo Telegram.jpeg

🔥 আরো গুরুত্বপূর্ন আপডেট-Click Here